টানা বৃষ্টির সঙ্গে দমকা হাওয়া, উৎসবের মধ্যেও ঘরবন্দী মানুষ

ফালাকাটা ও কোচবিহার, ২১ অক্টোবর: কালীপূজা ও ভাই ফোঁটার মধ্যে টানা বৃষ্টির সঙ্গে দমকা হাওয়ায় উত্তরবঙ্গের জনজীবন অনেকটাই বিধস্ত হয়ে উঠেছে। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি জায়গায় কালীপূজার আলোকতোড়ন ভেঙে পড়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মণ্ডপেরও। এদিন বেলা পর্যন্ত বেশ কিছু বাজারে বেশীর ভাগ দোকানপাট বন্ধ থাকতে দেখা গিয়েছে। বৃষ্টি ও দমকা হওয়ার জন্য আচমকা ঠাণ্ডা পড়ায় রাস্তায় সেভাবে লোকজনও বের হতে দেখা যায় নি। জানা গিয়েছে, আজ সকালে ফালাকাটা সুভাষপল্লী ক্লাবের কালীপূজায় ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কের উপড়ে থাকা আলোক তোড়ন ভেঙে পড়ে। এতে এক টোটো চালক আহত হয়। ক্ষতিগ্রস্ত হয় একটি যাত্রীবাহী বেসরকারি বাসও। বেশ কিছুক্ষন ধরে ওই গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা বন্ধ হয়ে থাকে বলে জানা গিয়েছে। এছাড়াও কোচবিহার শহরের এসিডিসি ক্লাব সংলগ্ন এলাকাতেও একটি বড় তোড়ন ভেঙে পড়ে বলে জানা গিয়েছে। ঘুঘুমারি মানব কল্যাণ সংঘের পূজা উদ্যোক্তা সঞ্জীব রাজভর জানিয়েছেন, টানা বৃষ্টি ও দমকা হাওয়ার জন্য পূজা মণ্ডপে সেভাবে কেউ আসছেন না। আমাদের প্রসাদ বিতরণ ও বস্ত্র দানের অনুষ্ঠান ছিল। সমস্ত কিছু বাতিল করতে হয়েছে। কোচবিহার শহরের ষ্টেশন মোড় এলাকার মিষ্টি বিক্রেতা স্বপন ঘোষ জানিয়েছেন, “অন্যান্য বছর যে ভাবে দই মিষ্টি বিক্রি হয়, এবছর তা হয় নি। মানুষ বৃষ্টি ও দমকা হাওয়ার মধ্যে বের হতে পারছে না। বিক্রি হবে কি করে।”