মদের টাকা না পাওয়ায় মেয়েকে পুড়িয়ে খুন বাবার

বর্ধমান, ৬ ডিসেম্বরঃ মদের টাকা না পাওয়ায় নিজের মেয়েকে খুন করার অভিযোগ উঠলো বাবার বিরুদ্ধে। মৃতার নাম সরস্বতী ক্ষেত্রপাল। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের মেমারিতে। ওই ঘটনায় পরিবারে শোকের ছায়া নেমেছে।

জানা গিয়েছে, কলেজ পাড়ার বাসিন্দা সরস্বতী (১৯) উচ্চমাধ্যমিকের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। প্রায়ই মদ খাওয়ার টাকার জন্য মা-মেয়েকে মারধর করত অভিযুক্ত বাবা শঙ্কর । মৃতার দিদি পিঙ্কি সাউ জানান, মঙ্গলবার বাবা বাড়ি এসে প্রথমে বচসা শুরু করে। মদ কেনার জন্য টাকা চাইলে সরস্বতী বাবাকে মদের টাকার পরিবর্তে ভাত দেয়। এর পরেই ক্ষুদ্ধ হয়ে বাবা ভাতের থালা ফেলে বোতল নিয়ে সরস্বতীর মাথায় মারে। এরপর আহত অবস্থায় চাদর ঢাকা দিয়ে শুয়ে পড়ে ওই যুবতী। অভিযোগ, শুয়ে থাকা মেয়ের গায়ে এরপর কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় শঙ্কর। পাশাপাশি দরজায় শিকল তুলে দেয়। জ্বলন্ত অবস্থায় সরস্বতী কোনো ভাবে বেরিয়ে এলেও টিউবওয়েলের কাছে যেতেই ফের আটকে দেয় তার বাবা।

এরপর অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় মঙ্গলবার বিকেলে সরস্বতীকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বুধবার ভোরে সেখানেই মৃত্যু হয় সরস্বতীর। ওই ঘতনায় শঙ্কর ক্ষেত্রপালকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।