গাছ কাটার প্রতিবাদ করায় মালদায় দুষ্কৃতিদের হাতে আক্রান্ত পঞ্চায়েত সদ্যসা সহ ৪ জন

মালদা, ২২ ডিসেম্বর: গাছ কাটার প্রতিবাদ করায় দুষ্কৃতিদের হাতে আক্রান্ত হলেন এক পঞ্চায়েত সদ্যসা সহ একই পরিবারের চার জন। বৃহস্পতিবার বিকেলে মালদা জেলার মোথাবাড়ি থানার যুগলটোলা গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আহতরা বর্তমানে মালদা মেডিক্যালে চিকিৎসাধীন। মোথাবাড়ি থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে। গোটা ঘটনার তদন্তে নামে পুলিশ। স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে, কালিয়াচক রেঞ্জের অস্থায়ী বন দপ্তরের কর্মী সাধন ঘোষ(৫৫) প্রতিদিনের মত গতকাল বিকেলে স্থানীয় ফরেষ্টে গাছ দেখাশোনার কাজ করছিল। সেই সময় একদল স্থানীয় দুষ্কৃতি গাছ কেটে নেওয়ার চেষ্টা করে। গাছ কাটতে বাধা দেন সাধন ঘোষ। সে সময় দুষ্কৃতিরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে সাধন ঘোষকে আঘাত করে।তার পরিবারের লোকেরা বাধা দিতে গেলে তাদেরও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপায় ওই দুষ্কৃতিরা। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যা সবিতা ঘোষ। তাকেও দুষ্কৃতিরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপায় বলে অভিযোগ। স্থানীয় বাসিন্দারা ছুটে আসলে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতিরা। ওই ঘটনায় জখম চারজনকে উদ্ধার করে মালদা মেডিক্যালে পাঠানো হয়। বনকর্মী সাধন ঘোষ, পঞ্চায়েত সদস্যা সবিতা ঘোষ, ক্ষিতিষ ঘোষ ও ঘনশ্যাম ঘোষ বর্তমানে মালদা মেডিক্যালে চিকিৎসাধীন।

ঘটনায় অভিযুক্ত গুরুপদ মন্ডল, স্বপন মন্ডল সহ সাত জনের বিরুদ্ধে মোথাবাড়ি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্তরা।