মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পরিস্কার পরিচ্ছন্নতায় জোর দিল প্রশাসন

বিশ্বজিৎ মণ্ডল, মালদা: কুশমুন্ডির নির্যাতিতাকে দেখতে এসে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল চত্বর ধূল, বালি, আবর্জনা দেখে ক্ষুব্দ হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। আর তার ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতে নড়েচড়ে বসে পুরসভা ও জেলা প্রশাসন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে হাসপাতাল চত্বরে প্রথমে জল দিয়ে পরিস্কার করা হয়। পরে ঝাড়ু মেরে পরিস্কারের কাজ শুরু করে পুরসভার কর্মীরা। এদিন ওই কাজের তদারকি করেন জেলা শাসক কৌশিক ভট্টাচার্য, ইংরেজবাজার পুরসভার পুরপ্রধান নিহাররঞ্জন ঘোষ, মালদা মেডিকেল কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল অমিত দাঁ সহ আরও অনেকে।

জেলা শাসক ও পুরপ্রধান জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে মেনে প্রতিদিন চলবে সাফাইয়ের কাজ। এই কাজের জন্য ১০ জন লোক কাজ করবে।আজ থেকে ওই সাফাইয়ের কাজ শুরু হল। সাফাই কর্মচারিদের আরবান এমপ্লয়মেন্ট স্কিমের মধ্যে দিয়ে টাকা দেওয়া হবে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী চাইছেন যে সমস্ত রোগী বা রোগীর পরিবার মালদা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে আসেন তারা যেন ধুলো, বালি, আবর্জনা মধ্যে দিয়ে যাতায়ত না করে এটাই ছিল ওনার মূল উদ্দেশে। তার জন্য ১৩ লক্ষ টাকা, ৩টা জলের ট্যাংকার ও ১টি ট্রাক্টর বরাদ্দ করা হয়েছে। আগামী ৭ দিনের মধ্যে এগুলি চলে আসবে।