হলদিবাড়িতে গ্রেনেড উদ্ধারের ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

শিলিগুড়ি, ২২ নভেম্বর: হলদিবাড়ীতে উদ্ধার হওয়া হ্যান্ড গ্রেনেড নিয়ে পুলিশকে তদন্ত করে দেখার নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ শিলিগুড়ির উত্তরকন্যায় কোচবিহার, জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ার নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে কোচবিহারের পুলিশ সুপার অনুপ জয়সওয়ালকে হলদিবাড়ীতে উদ্ধার হওয়া হ্যান্ড গ্রেনেড কি করে আসল, তা নিয়ে জানতে চান মুখ্যমন্ত্রী। এরপরেই তিনি ঘটনার যথাযথ ভাবে তদন্ত করার নির্দেশ দেন। তবে হলদিবাড়ী তে ওই গ্রেনেড নিষ্ক্রিয় করতে গিয়ে স্কুল ছাত্রীদের আহত হওয়ার ঘটনা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন কোন মন্তব্য করতে দেখা যায় নি। তিন জেলাই আন্তর্জাতিক সীমান্ত লাগোয়া। তাই সীমান্তে নজর রাখার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর। আদিবাসী সহ বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যে যাতে কেউ বিভেদ তৈরি না করতে পারে, তাঁর দিকেও নজর রাখার জন্য পুলিশ সুপারদের বলেন তিনি।

কোচবিহার ও জলপাইগুড়ি জেলার বেশ কিছু অংশে বাংলাদেশ সীমান্ত রয়েছে। আলিপুদুয়ার জেলায় রয়েছে ভুটান সীমান্ত। বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া কোচবিহারের হলদিবাড়ি এলাকা। ওই সীমান্ত এলাকা থেকে হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার হওয়ার ঘটনা মুখ্যমন্ত্রী যে অনেক গুরুত্ব দিয়ে দেখছেন, তা এদিন পুলিশ সুপারকে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া থেকেই পরিষ্কার।