জাতীয় নাগরিকপঞ্জীর অতিরিক্ত তালিকা প্রকাশ, নাম নেই ১ লক্ষ মানুষের

অসম, ২৬ জুনঃ জাতীয় নাগরিকপঞ্জী-র থেকে বাদপড়াদের অতিরিক্ত একটি তালিকা প্রকাশ করল অসম সরকার। সেই তালিকায় নাম নেই ১ লক্ষ ২ হাজার ৪৬২ জনের। কিন্তু গতবছর নাগরিক পঞ্জীর খসড়া তালিকায় তাদের নাম ছিল।

Top News

বুধবার, সকাল ১০ টায় ওই তালিকা প্রকাশ করা হয়। স্থানীয় এনআরসি সেবাকেন্দ্রগুলিতে (এনএসকে) গিয়ে নিজেদের নাম দেখে নিতে পারবেন আবেদনকারীরা। এছাড়াও ডেপুটি কমিশনার, সার্কেল অফিসারের দপ্তরেও ওই তালিকা পাওয়া যাবে। এই অতিরিক্ত খসড়ায় নাম রয়েছে এনআরসি-র চূড়ান্ত খসড়া থেকে বাদ পড়া ১ লক্ষ ২ হাজার ৪৬২ জন মানুষের। ২০১৮ সালের জুলাই ৩০-এ প্রকাশিত নাগরিকপঞ্জির চুড়ান্ত খসড়ায় নাম থাকলেও পরে অনেককেই বাদ দেওয়া হয়। অভিযোগ, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে ভেরিফিকেশনে অনেকেরই নথিতে অসংগতি দেখা যায়। ফলে তাঁদের নাম নাগরিকপঞ্জি থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়। সেই প্রক্রিয়া শেষে ১ লক্ষ ২ হাজার ৪৬২ জন মানুষের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে তালিকাটিতে। যদিও ওই তালিকাতে বিদেশি ট্রাইবুনালে চলা মামলাগুলিকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। ফলে বাদ পরা মানুষের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই প্রথম নাগরিকপঞ্জী-র তালিকা প্রকাশ করে অসম সরকার। সেখানে ২.৯ কোটি মানুষের নামে নথিভুক্ত করা হয়। তবে তালিকায় নাম তোলার জন্য আবেদন করেছিলেন ৩.২৯ কোটি মানুষ। ফলে বাদ পড়ে যান কয়েক লাখ মানুষ।

নাগরিকপঞ্জী-র আধিকারিকের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ২০০৩ সালের নাগরিক আইনের ৫ নম্বর ধারা অনুযায়ী নাগরিকপঞ্জী তৈরি করা হয়েছে।