বাঘিনীর সাথে যৌন ইচ্ছা পূরণ করতে লড়াই দুই বাঘের, মৃত্যু

ওয়েব ডেস্কঃ বাঘিনীর সাথে যৌন ইচ্ছা পূরণের লড়াইয়ে মৃত্যু হয়েছে এক বাঘের। কাজিরাঙা ন্যাশেনাল পার্কের কহরা রেঞ্জের বরুন্তিকা এলাকায় ওই বাঘের পচাগলা দেহ উদ্ধার হওয়ার পর এমন তথ্য সামনে এসেছে। ওই ঘটনা নিয়ে বন কর্মীদের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

Top News

কাজিরাঙা ন্যাশেনাল পার্কের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ময়না তদন্তের রিপোর্ট উঠেছে এসেছে নিজেদের মধ্যে মারামারি করেই মৃত্যু হয়েছে বাঘটির। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, পার্টনারের উপরে যৌন অধিকার কায়েম করতে গিয়ে পরস্পরের মধ্যে সংঘর্ষে মৃত্যু হচ্ছে বাঘেদের। অসমের কাজিরাঙা ন্যাশনাল পার্ক, অরং, মানস এবং নামেরি জাতীয় উদ্যানকে বাঘেদের নিরাপদ আস্তানা। আর সেখানেই এই নিয়ে দুবার ঘটল রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল। এর আগে বয়স জনিত কারণে মৃত্যুর ঘটনা ঘটলেও এবার বাঘিনীকে পেতেই দুই বাঘের লড়াইয়ে ওই ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে। পার্কের দায়িত্বপ্রাপ্ত এক আধিকারিক জানিয়েছেন, মৃত বাঘটির বয়স ১২ বছরের মধ্যে। অন্যান্য বাঘেদের সঙ্গে সংঘর্ষের জেরেই প্রাণ হারিয়েছে বাঘটি।

২০১৭ সালের গণনার হিসেবে কাজিরাঙা পার্কে পৃথিবীর সব থেকে বেশি একশৃঙ্গের গণ্ডার রয়েছে। সংখ্যায় প্রায় ২৪১৩। ১০৪টি বাঘও মিলেছিল ওই গণনায়। কিন্তু ২০১৮ সালের নভেম্বর থেকে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারির মধ্যে ওই পার্কে ১০ টি বাঘের মৃত্যু হয়েছে। বার্ধক্য জনিত কারণে, নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে, শিকার করতে গিয়ে যেমন মৃত্যু হচ্ছে। তেমনি গ্রামবাসীদের অনেকেই বিষ ব্যবহার করে বাঘেদের মেরে ফেলছেন বলে মনে করা হচ্ছে। গত বছর ডিসেম্বর পর্যন্ত বন দফতরের কর্মীরা সাত জনকে গ্রেফতার করেছে এই সংক্রান্ত অভিযোগে।