ধুবড়িতে প্রচারে গিয়ে দিল্লি থেকে বিজেপি হটানোর ডাক মমতার

অসম, ৫ এপ্রিলঃ ধুবড়িতে প্রচারে গিয়ে দিল্লি থেকে বিজেপি হটানোর ডাক দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার সভায় তিনি বলেন, “বিপদে পড়লে আপনার জন্য বাংলার দরজা খোলা। আপনাদের পাশে আমরা আছি। দিল্লিতে বিজেপিকে বদলে দিন”।

Top News

অসমে ৯টি লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী দিয়েছে তৃণমূল। মঙ্গলদই, নওগাঁও, জোড়হাট, করিমগঞ্জ, শিলচর, ধুবড়ি, কোকরাঝাড়, বরপেটা ও গুয়াহাটিতে প্রার্থী দিয়েছে তৃণমূল। ধুবড়ির প্রার্থী নুরুল ইসলামের সমর্থনে এদিন জনসভা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অসমিয়াতে বক্তৃতা শুরু করেন তৃণমূল নেত্রী। বক্তৃতার শুরুতেই মমতা বলেন, “অসমের সঙ্গে বাংলার সম্পর্ক চিরকালের”।

এদিন অসমের এনআরসি প্রসঙ্গে বিজেপি সরকারকে তোপ দাগেন মমতা। তিনি বলেন, “যখন এনআরসি হল, লিস্ট বেরল। ৪০ লাখ লোকের নাম বাদ গেল। আমার বুকে ধাক্কা লাগল। আমি আমার প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছিলাম এখানে। অন্য দল, যাদের সাংসদ-বিধায়ক আছে, তখন পাশে দাঁড়ায়নি। আমাদের লোককে ঢুকতে দেয়নি। ডিটেনশন ক্যাম্পে রাখা হয়েছে”।

এদিন মমতা অভিযোগ করে বলেন, “আমার বাঙালিদের ৫ জনকে গুলি করে মেরেছে। ৪০ লাখ নাম বাদ? হিন্দুদের ২২ লাখ নাম বাদ গিয়েছে। মুসলিম ভাইবোনের নাম বাদ গিয়েছে। ওরা হিন্দু মুসলমান করে”। তাঁর দাবি, “তৃণমূল কংগ্রেস ভোট না পেয়ে পাশে ছিলাম, ভোট দিয়ে দেখুন রক্ষা করব”।