পুলিশের গ্রেপ্তারি এড়াতে রিভালবারের গুলি খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা এক ব্যক্তি

তুষার কান্তি বিশ্বাস, উত্তর দিনাজপুরঃ পুলিশের গ্রেপ্তার এড়াতে রিভালবারের গুলি খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা এক ব্যক্তি। আহত ব্যক্তি উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ গভঃ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্ত্তি করা হয়েছে।

Top News

জানা গেছে, হেমতাবাদ থানার বাড়ুইবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা নূর ইসলাম স্ত্রী জুলেখা আকতারের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলছিল। আদালত স্ত্রী সম্পত্তি ফিরিয়ে দেবার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেয়। বুধবার রাতে হেমতাবাদ থানার পুলিশ জুলেখার স্বামী নুরুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে তার আসবাবপত্র ফিরিয়ে আনতে যায়। পুলিশের সঙ্গে কথা বলার সময়ই নুরুল পকেট থেকে গুলি বের করে আত্মহত্যার চেষ্ট করে।

পুলিশ ঘটনাটি দেখতে পেয়েই তড়িঘড়ি করে রায়গঞ্জ গভঃ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করে। গুলি এখনও তার শরীরেই আছে। গুলি যখন তার কাছে আছে বাড়িতে আগ্নেওয়াস্ত্র রয়েছে। এই ধারনা পুলিশ তার বাড়িতে ব্যপক তল্লাশী চালায়। তবে বাড়ি থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার হয় নি বলে হেমতাবাদ থানার পুলিশ জানিয়েছেন। নুরুল রায়গঞ্জ গভঃ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চতুর্থ শ্রেনীর কর্মি।