৮ ফুটের ডান্ডা নিয়ে রোড শোয়ে আসুন, ঝামেলা করতে হবে, বিজেপি নেতার ভিডিও ঘিরে চাঞ্চল্য

কলকাতা, ১৫ মেঃ বিদ্যাসাগর কলেজে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার ঘটনায় একে অপরের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছে বিজেপি ও তৃনমূল। তৃণমূলের দাবি, বিজেপি সমর্থকরাই বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে। কলেজে যাবতীয় অশান্তি ছড়ানো, বাইকে আগুন ধরানো, ভাঙচুর, যাবতীয় কাণ্ড ঘটিয়েছে বিজেপি। অন্যদিকে বিজেপির দাবি, এসবই তৃণমূলের কাজ। ভোটে হার নিশ্চিত যেনে শেষ দফার আগে মানুষের সহানুভূতি কুড়োতে নিজেরাই বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে। এখন বিজেপিকে বদনাম করার চক্রান্ত চলছে। নিজেদের ওই দাবির সমর্থনে ভিডিও পোস্ট করেছে গেরুয়া শিবির। পাল্টা ভিডিও দেখিয়েছে তৃনমূলও।

Top News

এবার আরও একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। যা ঘিরে নতুন করে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, খিদিরপুর এলাকার বিজেপি নেতা রাকেশ সিং, নিজের সমর্থকদের উদ্দেশ্যে হোয়াটসঅ্যাপে বার্তা দিচ্ছেন হিংসার জন্য তৈরি হতে। ৮ ফুটের ডান্ডা নিয়ে কর্মীদের আমিত শাহের রোড শোয়ে যেতে বলেন তিনি। (ভাইরাল হওয়া ভিডিও যাচাই করেনি খবরিয়া ২৪)

রাকেশ সিং ‘ফাটাফাটি’ নামের এক হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ওই ভিডিওটি পোস্ট করেছেন। যা ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। তাঁকে বলতে শোনা যাচ্ছে, “ফাটাফাটি গ্রুপের সদস্যরা আপনাদের কেন রাখা হয়েছে আপনারা জানেন। কালকের রোড শোতে ঝামেলা ঝঞ্ঝাট হতে পারে। যে সদস্যরা কাল আসবে না, তাদের ফাটাফাটি গ্রুপ থেকে বের করে দেওয়া হবে। আপনাদের ঝামেলা করতে হবে যে কোনও মূল্যে। তাই, আপনাদের আসতে হবে। অমিত শাহ’র রোড শোতে আপনাদেরই মূখ্য ভূমিকা নিতে হবে। ৮ ফুটের ডান্ডা নিয়ে পুলিশ এবং তৃণমূলে গুন্ডাদের বিরুদ্ধে লড়তে হবে আপনাদের।” ওই ভিডিও ছড়িয়ে পরতেই তৃণমূলের দাবি, ভিডিওতেই স্পষ্ট, পরিকল্পনা করেই হিংসা ছড়ানো হয়েছে বিজেপির মিছিলে।