১০০ দিনের কাজের টাকা দুর্নীতির অভিযোগে বিক্ষোভের মুখে তৃণমূল পঞ্চায়েতের উপপ্রধান

পার্থ দাস, বীরভূমঃ বীরভূমের সিউড়ি থানার অন্তর্গত কোমা গ্রাম পঞ্চায়েতের গাঙটে গ্রামের সাধারণ মানুষ আর আজ সকাল থেকেই স্থানীয় তৃণমূল নেতা বিপদতারণ বাগদির বাড়িতে গিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। বাড়ি ঘেরাও করে রেখে স্লোগান দেওয়া হয় টাকা ফেরতের। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় সিউড়ি থানার পুলিশ।

Top News

বিপদতারণ বাগদির বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের অভিযোগ ১০০ দিনের কাজের টাকা নয়-ছয় করেছে সে। কোন হিসাব দেননি তিনি, হিসাব চাইতে গেলে মারধর করে বলে অভিযোগ গ্রামবাসীদের। বিক্ষোভ চলাকালীন সেখানে গিয়ে পুলিশ পৌঁছায় এবং গ্রামবাসীদের সেখান থেকে সরিয়ে দেয়। সেখান থেকে সরিয়ে দিতেই গ্রামবাসীরা কোমা গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান বাড়িতে এসে বাড়ি ঘেরাও করে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার বাড়ি তৈরি সময় সকল গ্রামবাসীর কাছ থেকে বহু কাঠ মানি নিয়েছেন। কারো কাছে ১০ হাজার টাকা কারো কাছে ১৫ হাজার টাকা করে। বিক্ষোভ চলাকালীন সেখানেও গিয়ে পৌঁছায় সিউড়ি থানার পুলিশ, তাদেরকে সেখান থেকে পুলিশ সরিয়ে দেয়।

সেখান থেকে সরিয়ে দিতেই গ্রামের অন্যান্য তৃণমূল নেতার বাড়িতে বাড়িতে ঘুরছে সাধারণ মানুষ এবং বিক্ষোভ দেখাচ্ছে।তাদের দাবি একটাই কাঠ মানি টাকা ফেরত দিতে হবে। চাপের মুখে পড়ে টাকা নেওয়ার কথা অস্বীকার করলেও বুধবারের মধ্যে সমস্ত হিসাব গ্রামবাসীদের সামনে তুলে ধরবেন বলে জানিয়েছেন উপপ্রধান কাঞ্চন বৈদ্য।