ফের হাতির তান্ডব পশ্চিম মেদিনীপুরে

কার্ত্তিক গুহ, পশ্চিম মেদিনীপুর: ফের দলছুট দুটি দাঁতাল হাতি তান্ডব চালাল পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনার যাদবনগর এলাকায়। গতকাল রাতে ওই এলাকার একটি আশ্রমে ঢুকে ভাঙ্গচুর চালায় হাতি দুটি। ভেঙ্গে ফেলা হয় আশ্রমের মাটির দেওয়াল, বাইরে বার করে তছনছ করা হয় আসবাব। হাতির তান্ডবে প্রান ভয়ে পালায় আশ্রমের সন্ন্যাসী শান্তি দাস বৈরাগী। এরপর দুটি হাতি ঢুকে পড়ে গ্রামে, গ্রামের কয়েকজনের উঠানে বস্তায় রাখা কয়েক কুইন্টাল ধান টেনে বের করে খায় ও নষ্ট করে। ভাঙ্গা হয় উঠানের ঝিটেবেড়া। দুটি হাতির এ হেন তান্ডবে আতঙ্কে সিঁটকিয়ে বাড়ির ভিতর কান্নাকাটি শুরু করে দেয় ওই পরিবারের বৃদ্ধা সরস্বতী সদ্দার। বাড়ির ধান খেয়ে মেড়ে নষ্ট করে হাতিতে। এছাড়াও গ্রামেরই বেশকশেকজনের আলু সহ সবজির খেয়ে মেড়ে নষ্ট করেছে।

Top News

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, ধামকুড়িয়া বিটের পানশিউলি জঙ্গল থেকে দুটি হাতি বেরিয়ে লোকালয়ে প্রায়শই চলে আসছে এবং নিত্যদিন তছনছ করছে। কিন্তু বনদপ্তরের লোকের কোনও দেখা নেই। গতকালও বনদপ্তরের কেউ এলাকায় যায়নি। নিজেরাই আগুন জ্বালিয়ে হাতি তাড়িয়ে রাত পাহারা দিয়েছেন গ্রামবাসীরা। এর আগেও লাগাতার হাতির তান্ডব করেছে, মাঝে দুদিন ছিলনা হাতি। ফের গতকালই আবারও ওই দুটি হাতি এসে তছনছ করেছে এলাকায়। যার জেরে রীতিমত ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। প্রশ্ন উঠছে বনদপ্তরের ভূমিকা নিয়ে।