কুপিয়ে খুন তৃণমূল কর্মীকে, গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কথা অস্বীকার দলের

কার্ত্তিক গুহ, পশ্চিম মেদিনীপুরঃ ফের তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে প্রকাশ্যে এল মেদীনিপুরে। ওই ঘটনার জেরে মৃত্যু হল এক তৃণমূল কর্মীর। ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কেশপুর থানার ৪ নং নম্বর কোনার অঞ্চলের। ওই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২ জন। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রাই তাঁদের উদ্ধার করে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। চিকিত্সকরা তাদের মধ্যে এক জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Top News

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, মৃতের নাম নন্দ পণ্ডিত (৬২)। তিনি এলাকায় তৃণমূল কর্মী বলে পরিচিত। জানা গেছে, জমি বিবাদকে কেন্দ্র করে রবিবার রাতে কেশপুর থানার ৪ নম্বর কোণার অঞ্চলে উত্তেজনা ছড়ায়। স্থানীয়দের দাবি, তৃণমূলেরই দুই গোষ্ঠী বচসায় জড়িয়ে পড়ে। পরে তা গড়ায় হাতাহাতিতে।

অভিযোগ,এলাকারই প্রাক্তন তৃণমূলের বুথ সভাপতি অজিত পন্ডিতের পরিবারের সদস্যদের ওপর হামলা চলে। বাঁশ, হাঁসুয়া, লোহার রড নিয়ে চলে হামলা। অজিত পণ্ডিত-সহ তাঁর পরিবারের তিন সদস্যরা হামলার মুখে পড়ে। হাঁসুয়া দিয়ে নন্দ পণ্ডিত সহ বেশ কয়েকজনকে মাটিতে ফেলে কোপানো হয় বলে অভিযোগ। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রাই তাঁদের উদ্ধার করে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। চিকিত্সকরা নন্দ পণ্ডিত নামে এক জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ওই ঘটনার পর সোমবার সকাল থেকেই এলাকা থমথমে। তদন্ত শুরু করেছে কেশপুর থানার পুলিশ।

যদিও ওই অভিযোগ অস্বীকার করে জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অজিত মাইতি বলেন, গোটা বিষয়টি পারিবারিক বিবাদের জের। দল কোনও ভাবেই তাতে জড়িত নয়। পুলিশ তদন্ত করে দেখুক। যারা প্রকৃত দোষী তাদের পুলিশ গ্রেপ্তার করুক।