গরমকালে সুস্থ থাকবেন কিভাবে জানুন

হেলথ ডেস্ক, ১১ মেঃ গরমকাল এলেই সঙ্গে করে নিয়ে আসে হাজার রকম সমস্যা। হাঁসফাঁস গরম, কিভাবে স্বাস্থ্য ঠিক থাকবে। কিভাবেইবা সন্তানদের যত্ন নেবেন। ঠিক কোন পদ্ধতি মেনে চললে সম্পূর্ণ গরমকাল আপনি আরামে কাটাতে পারবেন। যদিও গরমে আবার কিভাবেই বা আপনি আরামে থাকবেন ? ভাবছেন নিশ্চয়ই? এই সময়ে না ঘুরে বেরিয়ে শান্তি না কাজে কর্মে। তবে জানেন কি কিছু কিছু সঠিক নিয়ম মেনে চললে কিন্তু আপনিও গরমকালকে বেশ শান্তিতেই কাটাতে পারবেন। চলুন জেনে নিই। সুস্থ থাকতে, গরমকালের খাদ্য তালিকাটা সঠিক না হলে, সুস্থ থাকা প্রায় অসম্ভব ! তাই গরমে কী খাবেন, কী খাবেন না, রইল তারই টিপস ৷

Top News

 গরমকালে জল খাওয়ার পরিমাণ বাড়িয়ে দিন ৷ দিনে অন্তত পক্ষে ৮ থেকে ১০ গ্লাস জল খান ৷ জলের মধ্যে অল্প পরিমাণ নুন ও চিনি মিশিয়ে নিতে পারেন ৷ গরমকালে এনার্জি বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করবে৷ ইচ্ছে করলে জলে লেবুর রস, চিনি ও নুন মিশিয়ে নিতে পারেন ৷ বাইরে বেরলে কোল ড্রিঙ্কের পরিবর্তে ডাবের জল পান করুন ৷ কিংবা সঙ্গে করে ক্যারি করুন লেবুজল৷ আর দেখুন সারাদিন কেমন তরতাজা থাকতে পারবেন। আর লেবু আপনার মন ভালো রাখতেও কাজে লাগে।

 এবার আসা জাক মেন খাবরায়ের বিষয়ে, এই গরমে মশলাযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলুন ৷ এড়িয়ে চলুন রেড মিট ৷ বরং মাছ খান ৷ খাদ্যতালিকায় রাখুন টক জাতীয় খাবার ৷ যত পারবেন সবজি ও ফল খান ৷ গরমকালে তরমুজ খাওয়া মাস্ট ৷ খেতে পারেন কলা, আঙুর, সবেদা ৷ রোজকার খাদ্যতালিকায় দই রাখুন অবশ্যই ৷ গরমকালে রোদের তাপ থেকে শরীরকে সুস্থ রাখতে দই খাওয়া মাস্ট ৷ টক দইয়ের মধ্যে অল্প বিটনুন দিয়েও খেতে পারেন ৷ তবে চিনি একদম নয় ! ইচ্ছে করলে লস্যিও পান করতে পারেন৷ 

 ক্যাফিনযুক্ত পানীয় পান না করাই ভালো ৷ বরং কফি বা চায়ের পরিবর্তে শরবত খান ৷ এই গরমে চা চললেও, কফি না পান করাই ভালো ! ইচ্ছে করলে, লিকার চায়ে বরফ ফেলে ঠান্ডা করে পান করতে পারেন ৷ চলতে পারে গ্রিনটিও ৷

 ব্রেকফাস্টে থাকুক পাউরুটি টোস্ট, ফল, আর ডিম সেদ্ধ ৷ দুপুরের খাবারে নিমপাতা ভাজা, সুক্তো, টক ডাল বা সবজি ডাল, মাছ বা চিকেনের হালকা ঝোল ৷ পাত শেষে টক দই ৷ রাতের খাবারে রুটি, হালকা স্যুপ কিংবা কম মশালাযুক্ত তরকারি ৷ তবে জল খান প্রচুর!

আর হ্যাঁ, সব শেষে বলে রাখি, নিয়ম মেনে চললেও সপ্তাহে একদিন নিয়ম ভাঙতেও পারেন। খেতেই পারেন আপনি যা খুব ভালবাসেন। মন ভালো রাখলে দেখবেন গরমকালও কিন্তু খারাপ লাগবেনা। বরং আনন্দের সঙ্গেই পার করতে পারবেন।