Be Well

গরমে ঘামাচির হাত থেকে বাঁচতে কি করবেন? জানুন

অতিরিক্ত গরমে আমাদের শরীরে ঘামাচি প্রধান সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর এই ঘামাচির সঙ্গে অসহ্য চুলকানি ও নানা রকম সংক্রমণ দেখা যায়। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ভাবে থাকলে ও সেই সঙ্গে গরমের সময় ঠান্ডা কোথাও অবস্থান করলে কিছুটা হলেও ঘামাচি থেকে মুক্ত থাকা সম্ভব হয়। এছাড়াও ঘরোয়া কিছু উপাদান ব্যবহার করেই সম্পূর্ণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন ভাবে ঘামাচির যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে।

এই কয়েকটি ঘরোয়া উপায় আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনে তুলে ধরা হল:-
ঘামাচির কারন:
ঘামাচি সাধারণত সেই সব লোকের বেশি হয়ে থাকে যারা অধিক গরম এবং সেঁতসেঁতে আবহাওয়ায় বসবাস করে। এই সমস্ত পরিবেশে বসবাসকারীরা অতিরিক্ত ঘামার কারনে এবং দেহের ঘাম গ্রন্থি বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে ঘামাচি দেখা দেয়।

ঘামাচি থেকে মুক্তির ঘরোয়া কিছু উপায়:-

১. নিম পাতা:
নিমপাতা ভালোভাবে বেটে নিন। খানিকটা জল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন এবং আক্রান্ত জায়গায় লাগান। সম্পূর্ণ না শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। সম্পূর্ণ শুকিয়ে গেলে পেস্টটি পরিস্কার ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিমপাতার এন্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান ঘামাচির জীবাণু মেরে ফেলে দ্রুত আপনাকে ঘামাচি থেকে মুক্তি দেবে। আরও ভালো ফলাফল পাবার জন্যে পেস্টটি দিনে ৪-৫ বার ব্যাবহার করতে পারেন।

২. বরফ:
ঘামাচি আক্রান্ত জায়গাটিতে খুব ভালোভাবে বরফ ঘষে নিন। দিনে দু-তিন বার এভাবে বরফ ব্যাবহার করুন। দেখবেন, এতে ঘামাচি থেকে উপশম পাবার পাশাপাশি খুব তারাতারি ঘামাচি সেরে যাবে।

৩. লেবুর রস:
প্রতিদিন কমপক্ষে ৩-৪ গ্লাস একটু বেশি করে লেবু মেশানো লেবুর শরবত পান করুন। এতে ঘামাচি থেকে দ্রুত মুক্তি পাওয়া যাবে।

৪. ঠাণ্ডা জল:
ঠাণ্ডা জলে একটি পরিস্কার সুতি কাপড় ভিজিয়ে নিন। তারপর সেই কাপড়টি আক্রান্ত জায়গায় লাগিয়ে রাখুন যতক্ষণ না জায়গাটি জল শুষে নিচ্ছে। এভাবে দিনে ২-৩ বার এই পদ্ধতিটি ব্যাবহার করুন। এতে ঘামচি দ্রুত সেরে যাবে।

৫. বেকিং সোডা:
১ কাপ ঠাণ্ডা জলে ১ টেবিল চামচ বেকিং সোডা নিন। এবার একটি পরিষ্কার কাপড় ওই সোডা জলে ভিজিয়ে নিন, কাপড়টি ঘামাচি আক্রান্ত জায়গায় কিছুক্ষন লাগিয়ে রাখুন। এতে ঘামাচি থেকে দ্রুত মুক্তি পাওয়া যাবে।

আমাদের খবর টেলিগ্রামে পেতে ক্লিক করুন নীচের লিঙ্কে:  http://t.me/khaboria24
হোয়াটস্যাপে আমাদের সাথে যুক্ত হতে এই লিংকে ক্লিক করুন:  http://bit.ly/2DpZN6l

ফেসবুকে আমাদের সাথে যুক্ত হতে এই লিংকে ক্লিক করে লাইক করুন: https://www.facebook.com/khaboria24/