মহিলাদের ভারজিনটি নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিতর্কের মুখে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপকের

কোলকাতা, ১৪ জানুয়ারিঃ বিতর্কের মুখে ফের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। এক অধ্যাপকের ফেসবুক পোস্টে মেয়েদের নিয়ে করা কুরুচিকর মন্ততবের জেরে বিতর্কের মুখে পরতে হল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়কে। অধ্যাপক কনক সরকার যিনি যাদবপুর বিশ্ব বিদ্যআলয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগে কর্মরত যার পোস্ট ঘিরে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন মহলে সমালোচনার ঝর উঠেছে।

Top News

ঠিক কী পোস্ট করেছিলেন তিনি?

কনক সরকার রবিবার দুপুরে করা ফেসবুক একটি পোস্ট করেন। তিনি সেই পোস্টের ক্যাপশন দিয়েছিলেন ‘ভার্জিন ব্রাইড—হোয়াই নট?’ কনকবাবুর কথায়, এখনও অনেক ছেলে রয়েছেন যাঁরা বোকা। তাঁরা কোনও কুমারী মেয়েকে বিয়ে করার কথা ভাবেন না। এরপরেই কনক সরকারের দাবি, কুমারী মেয়েরা হলো সিলড বোতল বা না খোলা বিস্কুটের প্যাকেটের মতো। তিনি লিখেছেন, সিল খোলা কোল্ড ড্রিঙ্কসের বোতল বা খোলা বিস্কুটের প্যাকেট কখনও কিনবেন?

তবে এখানেই শেষ নয়। কনকবাবু এরপর লিখেছেন, একটি মেয়ে কুমারীত্ব নিয়েই জন্মগ্রহণ করে। আর পরবর্তীকালে সেই কুমারী মেয়েই যখন কারও স্ত্রী হন তখন তিনি দেবদূতের সমান। এটাই নাকি মনে করেন অধিকাংশ ছেলেরা। এমনটাই দাবি করেছেন যাদবপুরের এই অধ্যাপক।

এত বিখ্যাত এক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকের এমন বক্তব্য নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইছে সোশ্যাল মিডিয়ায় এবং প্রশাসনিক মহলেও এই বিষয় নিয়ে সমালচনা মুলক মন্তব্য করতে শোনা যায়।