জয় শ্রীরাম না বলায় তৃণমূল কর্মীকে মারধরের অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

উত্তর ২৪ পরগনা  ,১৬ অগাস্ট: জয় শ্রীরাম না বলায় তৃণমূল কর্মীকে মারধর করার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। ওই ঘটনায় আহত হয়েছে কাউন্সিলারের ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে উত্তর ২৪ পরগনার কামারহাটি পুরসভার দক্ষিণেশ্বর মন্দির এলাকায়। জানা যায়, জয় শ্রীরাম না বলায় একটি বেআইনি মদের ঠেকে ভাঙচুরকে কেন্দ্র করে রিতিমত অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। ঘটনায় আক্রান্ত হন স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলার ও তার ছেলে। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওই ঘটনার জেরে শুক্রবার সকালে ১ জনকে  গ্রেফতার করা হয়েছে ও বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে ।

Top News

স্থানীয়দের অভিযোগ বৃহস্পতিবার রাতে, দক্ষিণেশ্বর ব্রিজের নীচে দুই যুবককে জয় শ্রীরাম বলার জন্য জোর করে এক স্থানীয় বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতী। এই দুই যুবক তা না বলায় শুরু হয় বচসা। তার জেরেই চলে মারধোর। এর প্রতিবাদ করে স্থানীয়রা ভাঙচুর চালায় বিজেপিতে আশ্রিত সমাজবিরোধীদের বেআইনি মদের ঠেকে। এই ঘটনার পরই কয়েকজন তৃণমূল সমর্থক ও স্থানীয় নেতা আরও দলবল নিয়ে পালটা আক্রমণ করে। মুহূর্তে পরিস্থিতি রাজনৈতিক রং নেয় বলে প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবী।

এলাকায় গন্ডগোলের খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে আসেন কামারহাটি পুরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডর কাউন্সিলার শঙ্করী ভৌমিক ও তাঁর ছেলে অরিন্দম ভৌমিক। স্থানীয়দের অভিযোগ এর পরই দুই পক্ষের মধ্যে শুরু হয় হাতাহাতি ও চলে ইট বৃষ্টিও । পরিস্থিতি মোকাবিলায় ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বরানগর পুলিশের বিশাল পুলিশ বাহিনী। লাঠিচার্জ করে দুই পক্ষকে সরিয়ে দেয় পুলিশ। সংঘর্ষে গুরুতর আহত হন কাউন্সিলরের ছেলে। এ ঘটনায় বিজেপির প্রতিক্রিয়া এখনও মেলেনি।