ফের নির্ভয়া কাণ্ডের ছায়া! ৩ বছরের শিশুকন্যাকে ধর্ষণ করে গোপনাঙ্গে লাঠি

ওয়েব ডেস্ক, ১৩ নভেম্বরঃ ফের নির্ভয়া কাণ্ডের ছায়া! তিন বছরের এক শিশুকন্যাকে ধর্ষণ করে তাঁর গোপনাঙ্গে লাঠি ধুকিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে। মর্মান্তিক ওই ঘটনাটি ঘটেছে গুরুগ্রামের সেক্টর ৬৬-র গুগা কলোনিতে।

Top News

সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার সকাল ১১টা নাগাদ তার বাড়ির সামনে দুই সঙ্গীর সঙ্গে খেলছিল ওই শিশুটি। সেইসময়য় সেখান থেকে ওই শিশুটিকে চকোলেটের লোভ দেখিয়ে ডেকে নিয়ে যায় অভিযুক্ত। এরপর সোমবার সকালে একটি দোকানের ভিতরে ওই শিশুটির মৃতদেহ দেখতে পান স্থানীয়রা। তার দেহ ভেসে যাচ্ছিল রক্তে। মাথায় জড়ানো ছিল পলিথিনের ব্যাগ। সঙ্গে সঙ্গে ওই ঘটনার খবর দেওয়া হয় থানায়। ওই ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত ওই যুবকের নাম সুনীল কুমার(২০)। পেশায় শ্রমিক। উত্তরপ্রদেশের মথুরা জেলার নওগাঁয়ের বাসিন্দা সে। যেখানে ঘটনাটি ঘটেছে, তার কাছাকাছি সে তার মা ও দুই বোনের সঙ্গে থাকত। দু’দিন আগে মায়ের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিল সুনীল। ওই ঘটনায় অ্যাসিস্ট্যান্ট পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) সামশের সিং জানিয়েছেন, “ঘটনার পর থেকে খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না সুনীলের। তার পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

ফরেনসিক বিশেষজ্ঞ দীপক মাথুর জানিয়েছেন, “তিন বছরের ওই শিশুকন্যার গোপনাঙ্গ থেকে ১০ সেন্টিমিটার লম্বা একটি লাঠি উদ্ধার করা হয়েছে। তার সারা শরীরে আঘাতের চিহ্ন ছিল। তবে মেয়েটির মৃত্যু হয়েছে মাথায় আঘাত লাগার কারনে। কোনও ভারী জিনিস দিয়ে তার মাথায় আঘাত করা হয়। এছাড়া নির্যাতিতার কাঁধ, কোমর, বুক ও পিঠে একাধিক ক্ষতচিহ্ন পাওয়া গিয়েছে। দেহের অদূরেই মিলেছে মেয়েটির জামাকাপড়”। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।