‘মিথ্যে অভিযোগের ভিত্তিতেই আমাকে সারানো হয়েছে’, পদ থেকে অপসারিত হওয়ার বিস্ফোরক অভিযোগ অলোক ভার্মার

ওয়েব ডেস্ক, ১১ জানুয়ারিঃ ‘মিথ্যে অভিযোগের ভিত্তিতেই আমাকে সারানো হয়েছে’। সিবিআই ডিরেক্টরের পদ থেকে অপসারিত হওয়ার পর সংবাদ মাধ্যমে এমনই দাবি করলেন অলোক ভার্মা।

Top News

বৃহস্পতিবার রাতে একটি সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাতকারে অলোক ভার্মা বলেন, “সিবিআইয়ের মতো সংস্থা যে কিনা দেশের বড়বড় দুর্নীতির তদন্ত করে থাকে তার স্বাধীনতা থাকা উচিত। যে কোনও মূল্যে সিবিআইয়ের স্বাধীনতা বজায় রাখা উচিত। বাইরের কোনও চাপ ছাড়াই সিবিআইয়ের চলা উচিত। এই প্রতিষ্ঠানকে ক্রমাগত ধ্বংস করার চেষ্টা হচ্ছিল। আমি তা বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলাম। যে লোকটা আমার বিরোধিতা করে এসেছেন, একমাত্র তার অভিযোগের ভিত্তিতেই আমাকে সরানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ তাঁর রায়ে অলোক ভার্মাকে ছুটিতে পাঠানোর সিদ্ধান্ত খারিজ করে দেন। অলোক ভার্মাকে ডিরেক্টর পদে পুনর্বহাল করার নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেন, “অলোক ভার্মা এখন থেকে তাঁর অফিসে যেতে পারেন কিন্তু বড় কোনও সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন না।” রায়ে প্রধান বিচারপতি অলোক ভার্মার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার হাই পাওয়ার কমিটির হাতেই ন্যস্ত করেন। ওই কমিটিতে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী, প্রধান বিচারপতি, সহ বিরোধী দলনেতাও। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে পুনরায় ডিরেক্টর পদে বহাল হয়ে অলোক ভার্মা গতকাল ৫ জন আধিকারিককে বদলির নির্দেশ দেন। পাশাপাশি ১০ আধিকারিকের বদলির নির্দেশ বাতিল করেন তিনি। এরপরেই এদিন সন্ধেয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাড়িতে বৈঠকে বসে হাই পাওয়ার কমিটি। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ-র প্রতিনিধি হিসেবে বৈঠকে ছিলেন বিচারপতি এ কে সিকরি। সেই কমিটিই অলোক ভার্মার অপসারণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।