মোদীর নজর বাংলায়,  গুরুত্ব হারিয়েছে উত্তরপ্রদেশ

ওয়েব ডেস্ক, ১৮ মেঃ মোদীর নজর বাংলায়, সেকারণে গুরুত্ব হারাচ্ছে উত্তরপ্রদেশ। এমনি মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা । পশ্চিমবঙ্গে মোদী-শাহ জুটি ৩৩টি জনসভা করেছেন৷ যোগী আদিত্যনাথ করেছেন কমপক্ষে ১৫টি৷ রাজনাথ সিং করেছেন চার বা পাঁচটি৷ ১৭ তম লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ-যোগী আদিত্যনাথ-রাজনীথ সিং সম্মিলিত ভাবে ৫০টিরও বেশি জনসভা করেছেন৷ দুই শীর্ষ নেতার এমন ঝোড়ো প্রচার বিজেপির রাজনৈতিক ইতিহাসে খুব একটা নেই তাও আবার বাংলাকে ঘিরে৷ সবমিলে সপ্তদশ লোকসভার অন্তিমলগ্নে এসে বিজেপি অন্দরমহলে গুঞ্জন-এটাও একটা রেকর্ড৷ তবে এর বিশ্লেষণ করেছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা৷

Top News

অর্থনীতিবিদ দীপঙ্কর দাশগুপ্ত মনে করেন, এই নির্বাচনে বিজেপি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে টলিয়ে দেবেন তা মনে করি না৷ বিজেপি ভালো করোই জানে বাংলায় মমতা অবস্থান কতটা শক্ত৷ বিজেপি হয়তো আগের ফলাফলের থেকে ভালো ফল করবে৷ কিন্তু মমতাকে তার অবস্থান থেকে সরাতে পারবে বলে মনে করি না৷ তবে হ্যাঁ ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়েই বিজেপি এত প্রবল প্রচার করেছে, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই৷

বাংলায় মোদী ১৭টি জনসভা করেছেন৷ প্রতি জনসভাতেই হাজার-হাজার মানুষের ভিড় দেখা গিয়েছে৷ রাজনৈতিক মহল একটি ব্যাপারে নিশ্চিত, এই প্রথম বাংলাকে উত্তরপ্রদেশের থেকেও গুরুত্ব দিয়েছে বিজেপি৷ উত্তরপ্রদেশে ৮০টি লোকসভা আসনের জন্য ১৮টি জনসভা করেছেন প্রধানমন্ত্রী৷ কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে ৪২টি লোকসভা কেন্দ্রের জন্য করেছেন ১৭টি জনসভা৷

নির্বাচনে শুরু থেকেই বাংলাকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহ৷আবার অনেক রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা লক্ষ করেছেন, মোদী উত্তরপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র, ওড়িশা এবং গুজরাটেকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন৷ এই পাঁচ রাজ্যই তাকে ক্ষমতায় ফিরিয়ে আসবে মনে করেছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব৷ সেই কারণে ৫০ শতাংশ প্রচার এই পাঁচ রাজ্যেই করেছেন মোদী৷ কিন্তু বাংলার দিকে তাকিয়ে রীতিমতো অবাক সারা ভারতের রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা৷ অতীতে কোনও প্রধানমন্ত্রী লোকসভা নির্বাচনের জন্য বাংলায় ১৭টি জনসভা করেছেন – এমন কথা মনে করতে পারছেন কেউ৷