‘জওয়ানদের মৃত্যুতে সারা দেশ যখন কাঁদছে, প্রধানমন্ত্রী তখন শুটিং-এ ব্যস্ত’, তোপ কংগ্রেসের

ওয়েব ডেস্ক, ২১ ফেব্রুয়ারিঃ পুলওয়ামায় জঙ্গি হানার পর সারা দেশ যখন সিআরপিএফ জওয়ানদের মৃত্যুতে কাঁদছে, প্রধানমন্ত্রী তখন শুটিং করছিলেন’। এমনই অভিযোগ তুলে বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ শানাল কংগ্রেস। রীতিমতো তোপ দেগে দলের মুখপাত্র রণদীপ সিংহ সুরজেওয়ালার প্রশ্ন, ‘‘সারা বিশ্বে এ রকম প্রধানমন্ত্রী আর কোনও দেশে আছেন?’’

Top News

সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের জন্য সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী একটি প্রচারমূলক তথ্যচিত্রের শুটিং করছেন। ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামা হামলার দিনও প্রায় দিনভর সেই তথ্যচিত্রের শুটিং হয়েছে উত্তরাখণ্ডের জিম করবেট ন্যাশন্যাল পার্কে। পুলওয়ামা হামলা হয় দুপুর ৩টে নাগাদ। কংগ্রেসের অভিযোগ, সেই খবর পাওয়ার পরও সন্ধে পর্যন্ত শুটিংয়েই ব্যস্ত ছিলেন নরেন্দ্র মোদী। এত বড় জঙ্গি হানার পরও প্রধানমন্ত্রী কী করে শুটিং করেন, তাই নিয়েই প্রশ্ন তুলেছে কংগ্রেস। সুরজেওয়ালার অভিযোগ, ক্ষমতার লোভে মোদী রাজধর্ম পালন করছেন না।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠক করে দলের মুখপাত্র রণদীপ সিংহ সুরজেওয়ালা বলেন, ‘‘পুলওয়ামায় জঙ্গি হানা হয় ৩.১০ মিনিটে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী জিম করবেট ন্যাশনাল পার্কে ওই তথ্যচিত্রের শুটিং করেছেন সন্ধে ৬.৪০ পর্যন্ত। সারা দেশ জওয়ানদের মৃত্যুতে শোকগ্রস্ত। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী তখনও শুটিংয়ে ব্যস্ত।’’

স্থানীয় একাধিক সংবাদপত্রে মোদীর প্রতি মিনিটের কার্যক্রম ছাপিয়েছে বলে উল্লেখ করে সেই সংবাদপত্রও সাংবাদিকদের দেখান সুরজেওয়ালা। এ নিয়ে মোদীকে সুরজেওয়ালার আক্রমণ করে বলেন, ‘‘নিজেকে জাহির করতে তথ্যচিত্রের শুটিং করছিলেন, করবেট পার্কে কুমিরদের মধ্যে সময় কাটাচ্ছিলেন মোদী। একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের চিত্রগ্রাহকদের সঙ্গে চা-শিঙাড়া খাচ্ছিলেন। অথচ জওয়ানদের মৃত্যুতে দেশ খিদেই ভুলে গিয়েছিল। এটা ঘৃণ্য এবং লজ্জাজনক”।