শীতলকুচিতে বিদ্যুৎ পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু এক শিক্ষকের, শোকের ছায়া পরিবারে

শীতলকুচি, ২২ মে: বিদ্যুৎ পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হল এক প্রাথমিক শিক্ষক। ঘটনাটি ঘটেছে রাতে শীতলকুচি ব্লকের কার্জীরদীঘি এলাকায়। ওই ঘটনার পর পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে শীতলকুচি ব্লক হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ওই ঘটনার খবর পেয়ে শীতলকুচি থানায় পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাথাভাঙ্গা মহকুমা হাসপাতালে পাঠায়।

Top News

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মৃত ওই শিক্ষকের নাম মনোহরী বর্মন (৪৫)। তার বাড়ি শীতলকুচি ব্লকের কার্জীরদীঘি এলাকায়। পরিবার সূত্রে জানা গেছে, এদিন মনোহরী বর্মনের বাড়িতে শোবার ঘরে ইলেকট্রিকের খোলা তারের সঙ্গে স্টিলের আসবাপত্রের ইলেকট্রিক সংযোগ হয়ে যায়। মনোহরী বাবুর অজান্তে সেই আসবাপত্রের উপর রাখা ঔষধ নিতে গেলে ইলেকট্রিক শক লাগে এবং ছিটকে গিয়ে পরে মাথায় আঘাত পান।

পরে তাঁকে শীতলকুচি ব্লক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করে। পরে পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাথাভাঙ্গা মহকুমা হাসপাতালে পাঠায়। শিক্ষকের অকাল মৃত্যুতে গোটা শীতলকুচিতে শোকের ছায়া।