কোচবিহার ভবানীগঞ্জ বাজারে অবৈধ নির্মাণের অভিযোগ, কাজ বন্ধ করে দিল ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা

কোচবিহার, ১৯ জুলাইঃ কোচবিহার ভবানীগঞ্জ বাজারে অবৈধভাবে নির্মাণ কাজ করেছে কোচবিহার পৌরসভা। ব্যবসায়ীদের অন্ধকারে রেখে বাজারের ৪ তলায় বেআইনিভাবে অবৈজ্ঞানিক প্রথায় নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে একটি অসাধু দালাল চক্র। এই অভিযোগ তুলে ওই কাজ বন্ধ করে দেন ব্যবসায়ীরা। ঘটনায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয় বাজার চত্বরে।

Top News

কোচবিহারের মধ্যে ভবানীগঞ্জ বাজার বড় বাজার নামে খ্যাত। এখানে পাইকারি ও খুচরো বাজারের বিকিকিনি হয়ে থাকে। কোচবিহার জেলা তো বটেই নিন্ম অসমের বহু সাধারন মানুষ ও ব্যবসায়ীরা এই বাজারের উপর নির্ভরশীল। ২০০৩ সালে এই বাজারে বিধ্বংসী অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

সেই অগ্নিকান্ডের জেরে ভস্মীভূত হয়ে যায় বাজারের অধিকাংশ দোকান। এরপর আবার সেটাকে পুরসভার পক্ষ থেকে পুনঃনির্মাণ করা হয়, কিন্তু বেশকিছু ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী এখনও সেই দোকান পাননি বলে অভিযোগ। এই নির্মাণ সেই সময়ও সঠিকভাবে হয়নি বলে অভিযোগ রয়েছে ব্যবসায়ীদের। এরপর দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে বেহাল অবস্থা হয় ওই বাজার চত্বরের। এবারে সংস্কারের নামে অবৈধভাবে নির্মাণ শুরু করেছে কোচবিহার পৌরসভা বলে অভিযোগ ব্যবসায়ীদের।

কোচবিহার জেলা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি নারায়ন মোদক বলেন, প্রায় ১৫ বছর আগের সেই অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থরা এখনও অনেকেই নতুন করে দোকান পাননি। আমরা চাই এই সমস্যার সমাধান আগে হোক। বর্তমানে ওপরে যে নির্মাণ হচ্ছে সেটা পুরোপুরি অবৈধ। এরফলে বাজারের অবস্থা আরও ভয়ঙ্কর হবার আশঙ্কা করছেন তিনি।

ব্যবসায়ীদের অভিযোগ এধরনের নির্মাণে নিকাশি ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ছে এর ফলে ব্যবসায়ীরা আরও ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। জেলা ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক চাঁদমোহন সাহা বলেন, এই নির্মাণ আমরা কোনভাবেই মেনে নিতে পারছি না তাই কাজ বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছি।

ব্যবসায়ীদের এই অভিযোগকে অবশ্য উড়িয়ে দিয়েছেন পৌরপতি ভূষণ সিং। তিনি টেলিফোনে জানান, আমি বর্তমানে কলকাতায় রয়েছি কোচবিহারে এসে বিষয়টি দেখবো। তবে এই নির্মাণ অবৈধ নয় বলে তার দাবি। কয়েক দিন ওই নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকবে বলে তিনি  জানান।