দিনহাটায় তৃণমূল প্রধানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ, পঞ্চায়েত দফতরে অবস্থান বিক্ষোভ  

মনিরুল হক, দিনহাটাঃ তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধানের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও তোলাবাজির অভিযোগ তুলে গ্রাম পঞ্চায়েত দফতরের সামনে বিক্ষোভ দেখাল স্থানীয় গ্রামবাসীরা। সোমবার বেলা ১ টা নাগাদ দিনহাটা ২ ব্লকের বুড়িরহাট ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত দফতরের সামনে ওই বিক্ষোভ হয়।  বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, বোর্ড গঠন হওয়ার পর থেকেই ওই গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সুশান্ত বর্মণ(প্রভাত) সাধারন মানুষকে বিভিন্ন সরকারি অনুদান পাইয়ে দেওয়ার নাম করে টাকা আদায় করছেন। জব কার্ডধারীদের কাছ থেকে ১৫০০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ।

Top News

যদিও প্রধান সুশান্ত বর্মণ(প্রভাত) ওই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে বলেন, “বোর্ড গঠন হওয়ার পর এই অল্প সময়ের মধ্যে দুর্নীতির অভিযোগ তোলা মানেই কোন অভিসন্ধি রয়েছে, এটা খুব সহজে বোঝা যায়। আসলে রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করতেই ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলে এই আন্দোলন করা হয়েছে।” অন্যদিকে আন্দোলনকারী পক্ষে মদন রায়, উত্তম কুমার রায় ও বিধান চন্দ্র রায় সরকাররা অভিযোগ করে জানান, “প্রধান হওয়ার আগে থেকেই তৃণমূল কংগ্রেসের অঞ্চল সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন প্রভাত বাবু। তখন থেকেই তোলা আদায় করতেন তিনি। এবার প্রধান হওয়ার পর তোলা আদায় দ্বিগুণ মাত্রায় বাড়িয়ে দিয়েছেন। তাই আমরা দুর্নীতিবাজ প্রধানকে দ্রুত ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।”

গ্রাম পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে থেকেই দিনহাটায় মাদার-যুব’র লড়াই চলছে। বোর্ড গঠনের সময় বেশ কিছু গ্রাম পঞ্চায়েতে ওই দুই গোষ্ঠীর লড়াই প্রকাশ্যে চলে আসে। বুড়িরহাট ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতে মাদার গোষ্ঠী ক্ষমতা দখল করতে সমর্থ হয়। প্রধান করা হয় সেখানকার দলের অঞ্চল সভাপতি তথা মাদার গোষ্ঠীর নেতা প্রভাত বাবুকে। কিন্তু সেখান যুব গোষ্ঠীর নেতা কর্মীরা তা মেনে নিতে পারেন নি। এদিন অবস্থান বিক্ষোভে কোন দলীয় পতাকা না থাকলেও রাজনৈতিক মহলের ধারনা মাদার গোষ্ঠীর নেতা ওই প্রধানকে সরাতেই দুর্নীতির অভিযোগকে হাতিয়ার করে আন্দোলনে নেমেছে যুব গোষ্ঠী।