টানা বৃষ্টির মধ্যে ব্যাপক ঝড় কোচবিহারে, পাঁচ শতাধিক বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত, আহত ৮  

কাজল রায়, মাথাভাঙাঃ টানা বৃষ্টির মধ্যেই আচমকা দমকা হওয়ায় বাড়িঘর ও গাছ পালা ভেঙে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। গতকাল রাতে কোচবিহার জেলার মাথাভাঙা ১ নম্বর ব্লকের কেদারহাট ও গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা এবং মেখলিগঞ্জের কুচলিবাড়ি, নিজতরফ, উছলপুকুরি সহ বেশ কিছু এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।খবর পেয়ে প্রশাসনের আধিকারিকরা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে গিয়েছেন।

Top News

প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে, সব মিলিয়ে পাঁচ শতাধিক বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আহত হয়েছেন ৮ জন। মাথাভাঙার কেদারহাট ও গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েত ৪০০ বেশী বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানে ৩ মহিলা আহত হয়েছেন।এরমধ্যে আমি বালা বর্মণ নামে এক মহিলাকে গুরুতর আহত অবস্থায় জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদিকে একই অবস্থা মেখলিগঞ্জের ওই তিন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। সেখানে ৫০০ বেশী বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আহত হয়েছেন ৫ জন। মাথাভাঙার কেদারহাট গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার জোরশিমুলি গ্রামের বাসিন্দা কামিনী বর্মণ বলেন, “কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টি চলছিল। তারমধ্যেই গতকাল রাত ১২ টা নাগাদ আচমকা ঝড় শুরু হয়। সেই ঝড়ে আমাদের সমস্ত কিছু গুড়িয়ে দিয়ে গেছে। বাড়িতে ঘর কেন, একটা গাছপালাও দাঁড়িয়ে নেই। হাঁস মুরগী গবাদি পশুর ক্ষতি হয়েছে। আমরা এখন অসহায় হয়ে পড়েছি। প্রশাসনের সাহায্য প্রার্থনা করছি।”

মাথাভাঙা ১ নম্বর ব্লকের বিডিও সম্বল ঝা বলেন, “ঘূর্ণি ঝড়ের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে প্রতিনিধি দল পাঠানো হয়েছে। ওই প্রতিনিধি দলের রিপোর্টের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।সব দিক নজর রাখা হচ্ছে।”