চকচকা শিল্পতালুকে তৈরি হচ্ছে নতুন ২৪টি শিল্প ইউনিট

কলকাতা, ১ আগস্টঃ কোচবিহারের চকচকা শিল্পতালুকে নতুন ২৪টি শিল্প ইউনিট তৈরি হতে চলেছে। ২১টি ইউনিট ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের কাছে জমির জন্য টাকা জমা দিয়েছে। কোচবিহারের শিল্প তাকুল নিয়ে বিধায়ক নগেন্দ্র নাথ রায়ের প্রশ্নের উত্তরে বিধানসভায় একথা জানান শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী আমিত মিত্র। মঙ্গলবার কোচবিহারের ফরোয়ার্ড ব্লক বিধায়ক নগেন্দ্রনাথ রায় বিধানসভায় একটি প্রশ্ন তোলেন। তিনি জানতে চান, কোচবিহারের চকচকা শিল্প বিকাশ কেন্দ্রের অব্যবহৃত জমিতে রাজ্য কি কোনও শিল্প আনার পরিকল্পনা করছে? করে থাকলে তা এখন কোন পর্যায়ে আছে?

Top News

অমিত মিত্র জানান, কোচবিহারের ২০.৬৮ একর জমিতে শিল্প ও কারখানার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। কোচবিহারে চকচকা শিল্পতালুকে নতুন ২৪টি শিল্প ইউনিট তৈরি হতে চলেছে। ২১টি ইউনিট ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের কাছে জমির জন্য টাকা জমা দিয়েছে। ২১টির জন্য ইতিমধ্যে ১৬.৫১ একর জমি শিল্পোদ্যোগীদের দেওয়া হয়েছে।” এই শিল্প এলে রাজ্যে ২১৫৬ জনের কর্মসংস্থান হবে। ২৪টি শিল্প ইউনিটে বিনিয়োগ করা হয়েছে ৬৮৩১.৯৮ লাখ টাকা।

বিধানসভায় এই শিল্প নিয়ে আরও তথ্য দিয়ে অমিত মিত্র বলেন, “এতদিন সরকারের শিল্পভাবনায় জুটপার্ক ছিল। এখন মাল্টি-প্রোডাক্ট পার্কের কথাও ভাবছে সরকার। ২১টি ইউনিটে কাজ শুরু হয়েছে। সেখানে কাজ করছেন ২০৩৮ জন।” বিধানসভায় অতিরিক্ত প্রশ্নের উত্তরে অর্থমন্ত্রী জানান, শুধু কোচবিহার নয়, যে সব জেলায় অব্যবহৃত জমি পরে আছে, সেখানেই শিল্পস্থাপনের জন্য উদ্যোগ নিচ্ছে রাজ্য সরকার। রাজ্যের যেসব কারখানা বন্ধ আছে বা ধুঁকছে, সেগুলো নিয়েও সদর্থক ভাবনা-চিন্তা করা হবে।