ইভিএমে ভোট নিয়ে কোচবিহারে কর্মীদের সজাগ থাকার নির্দেশ তৃণমূল জেলা সভাপতির

কোচবিহার, ১৪ মার্চঃ ইভিএম নিয়ে সজাগ থাকার জন্য কর্মীদের নির্দেশ দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের কোচবিহার জেলা সভাপতি রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। আজ কোলকাতা থেকে কোচবিহারে ফিরেই দলীয় প্রার্থী পরেশ অধিকারীর সমর্থনে তিন জায়গায় কর্মী সভা করেন তিনি। তাঁর প্রথম সভা হয় সিতাইয়ে, এরপর শীতলখুচি ও শেষ সভা করেন মাথাভাঙার শিকারপুর এলাকায়। শীতলখুচির সভায় রবিবাবু ইভিএম নিয়ে কর্মীদের সাবধান করে দিয়ে বলেন, “এবার ইভিএমে ভোট। থাকবে ভি ভি প্যাড। প্রচারের সময় ভোটারদের জানাতে হবে, ভোট দেওয়ার পর ভি ভি প্যাডে কোথায় ভোট দিয়েছেন, তা ৩০ সেকেন্ডের জন্য দেখতে পাবেন। সেখানে যদি অন্য কোথাও গিয়ে ভোট পরে। সাথে সাথে অভিযোগ জানাতে হবে। পোলিং এজেন্টদের এব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে।”

Top News

এছাড়াও রবিবাবু বিজেপিকে আক্রমণ করে জানান, সাম্প্রদায়িক দল বিজেপি এরাজ্যে হিংসা ছড়াচ্ছে। তাঁরা বিভেদের রাজনীতি করে দেশকে টুকরো করতে চাইছে। অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেস সংহতির মন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে উন্নয়নের ডালি নিয়ে মানুষের কাছে যাচ্ছে। এরাজ্যের উন্নয়নই তৃণমূলের প্রধান স্লোগান। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যান্যার্জী এই মুহুর্তে বিজেপি বিরোধী প্রধান মুখ বলে দাবি করেন রবি বাবু। তিনি আরও অভিযোগ করে জানান, মোদীর রাজত্বে দেশের অর্থনৈতিক ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে। নোট বন্দি, রাফাল দুর্নীতি, ব্যাঙ্কের কোটি কোটি টাকা জালিয়াতি করে মোদী ঘনিষ্ঠদের বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার প্রসঙ্গ তুলে ধরেন তিনি। অসমে নাগরিকত্ব বিল নিয়ে বিজেপি সেখানকার মানুষের উপড়ে অত্যাচার চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।এই পরিস্থিতিতে দেশ রক্ষার্থে বিজেপি হটাবার ডাক দিয়েছেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নেত্রীর ডাকে সমস্ত কর্মীদের ময়দানে নেমে দলীয় প্রার্থীকে বিপুল ভোটে জেতানোর লক্ষ্যে ময়দানে নামার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

এই কেন্দ্রে তৃনমুলের প্রার্থী এবার নতুন মুখ। প্রকাশ্যে স্বীকার না করলেও আচমকাই বিজেপির সাংগঠনিক ভাবে শক্তিশালী হয়ে ওঠা, দলের গোষ্ঠী কোন্দল নিয়ে তৃণমূলের মধ্যে উদ্বেগ রয়েছে। তাই নতুন প্রার্থীকে দলের কর্মী সমর্থকদের মধ্যে দ্রুত আপ্ন করে নেওয়ার জন্য কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্রের ভোট যুদ্ধে তৃণমূলের সেনাপতি রবীন্দ্রনাথ বাবু কার্যত ঝাঁপিয়ে পড়েছেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।