দলীয় কর্মী খুনে অভিযুক্ত বিজেপি কর্মীদের ফাঁসির দাবী তৃনমূল মন্ত্রীর, দেখুন ভিডিও

মাথাভাঙা, ২৪ এপ্রিল: রাজনৈতিক সংঘর্ষে নিহত দলের কর্মীর পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দিলেন তৃনমূল কংগ্রেসের কোচবিহার জেলা সভাপতি তথা উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। আজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ স্থানীয় বিধায়ক তথা বনমন্ত্রী বিনয় কৃষ্ণ বর্মণ, দলের জেলা সহ সভাপতি আব্দুল জলিল আহমেদকে নিয়ে মাথাভাঙার ফুলবাড়ি এলাকায় ওই নিহত কর্মীর বাড়ি যান রবীন্দ্রনাথ বাবু। পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলেন তিনি। তবে পঞ্চায়েত নির্বাচন থাকায় এই মুহূর্তে কিছু করতে না পারলেও নির্বাচন পরবর্তী সময়ে দল ওই নিহত কর্মীর পাশে থাকবে বলে আশ্বাস দেন তিনি। পঞ্চায়েত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চৈত্র সংক্রান্তির দিন বিজেপির সাথে সংঘর্ষে আহত হন মাথাভাঙা ২ নম্বর ব্লকের ফুলবাড়ি অঞ্চল তৃনমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি বাবলু সরকার। তাঁকে রাস্তায় আটকে বিজেপির দুষ্কৃতীরা হাতের আঙ্গুল কেটে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

Top News

এছাড়াও শরীরে বিভিন্ন জায়গায় ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে বাবলু বর্মণের শরীর ক্ষতবিক্ষত করা। পরে তাঁকে গুরুতর আহত অবস্থায় শিলিগুড়ির একটি নার্সিং হোমে ভর্তি করানো হয়। ২০ এপ্রিল ওই নার্সিং হোমে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তাঁর। ওই ঘটনার পরে স্থানীয় তৃনমূল কংগ্রেস কর্মীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে। অর্থনৈতিক ভাবে দুঃস্থ বাবলুর পরিবারে তিন সন্তান, স্ত্রী, বাবা ও মা একমাত্র উপার্জনকারীকে হারিয়ে কার্যত দিশে হারা হয়ে পড়েন।

এদিন সব রকম ভাবে ওই পারিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়ে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেন, “নির্বাচনের কারনে এখন কিছু বলা সম্ভব হয়। তবে আমরা ওই পরিবারের সঙ্গে আছি। যারা বাবলুকে খুন করেছে, বিজেপির সেই হার্মাদদের যাতে ফাঁসির সাজা হয়, দল তাঁর জন্য আইনি লড়াই চালআবে।”