মৃত্যু হল টিটাগড়ের গুলিবিদ্ধ তৃণমূল কর্মীর

টিটাগড়, ৩০ অক্টোবরঃ মৃত্যু হল টিটাগড়ের গুলিবিদ্ধ তৃণমূল কর্মীর। তিনি টিটাগড়ের ২১ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি ছিলেন। সোমবারই গুলিবিদ্ধ হন সতীশ মিশ্র নামে ২৬ বছরের ওই তৃণমূলকর্মী। এরপর তাঁকে উদ্ধার করে বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। মঙ্গলবার সকালে হাসপাতালেই মৃত্যু হয় তাঁর।

Top News

জানা গিয়েছে, সোমবার দুই দুষ্কৃতী বাইকে করে বিটি রোড সংলগ্ন একটি নির্মীয়মাণ পুজো মণ্ডপের বাইরে দাঁড়িয়েছিল। ওই মণ্ডপের সামনেই দলীয় অনুগামীদের সঙ্গে কালী পুজোর প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা করছিলেন স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলর তথা অর্জুন সিং ঘনিষ্ঠ তৃণমূল যুব নেতা মনীশ শুক্লা। সেই সময় ওই দুই দুষ্কৃতী নির্মীয়মান মন্ডপের সামনে দাঁড়িয়ে খুব কাছ থেকে মনীশ শুক্লাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় বলে অভিযোগ৷ যদিও গুলি লক্ষ্য ভ্রষ্ট হয়ে গিয়ে লাগে মনীশবাবুর পাশে দাড়ানো তৃণমূল কর্মী সতীশ মিশ্রের বুকে। এরপরেই ওই দুই দুষ্কৃতী বিটি রোড ধরে পালিয়ে যায়। এরপর তাঁকে অন্যান্য তৃণমূল কর্মীরা উদ্ধার করে নিয়ে যায় বারাকপুরের এক বেসরকারি হাসপাতালে৷ সেখানে সতীশের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে পরে তাঁকে কলকাতার বাইপাসের ধারে এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷

ওই ঘটনায় টিটাগড় পুরসভার তৃণমূল কাউন্সিলর মনীশ শুক্লা বলেন, ‘‘সতীশ খুবই ভালো ছেলে। আমাদের দলের সক্রিয় কর্মী। ওই দুষ্কৃতীরা আমাকে মারার উদ্দেশ্যেই গুলি চালিয়ে ছিল। কিন্তু গুলি লক্ষ্য ভ্রষ্ট হয়ে সতীশের বুকে লাগে”। এদিকে ওই ঘটনায় সমীর, সঞ্জয়, কালু গুন্ডা এবং ভোলা প্রসাদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অভিযুক্তদের আজ ব্যারাকপুর আদালতে তুলে নিজেদের হেপাজতে নেওয়ার জন্য আবেদন জানাবে পুলিশ।