স্ত্রীর লালসার শিকার প্রতিবন্ধী স্বামী ও মেয়ে

উত্তর ২৪ পরগনা, ২৩ ডিসেম্বরঃ সম্পত্তি লিখে না দেওয়ায় নিজের প্রতিবন্ধী স্বামী ও মেয়েকে না খেতে দিয়ে ঘরে তালাবন্দী করে রাখার অভিযোগ উঠলো স্ত্রীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে কাঁচরাপাড়ার লক্ষ্মী সিনেমা হল সংলগ্ন এলাকায়৷ ওই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

Top News

জানা গিয়েছে, ২০০৩ সালে শতদ্রু দত্তের সাথে বিয়ে হয় মিলি দত্তের৷ ২০০৪ সালে পথ দুর্ঘটনায় আহত হন শতদ্রু৷ এরপর বিমা থেকে পাওয়া ক্ষতিপূরণ ১৬ লক্ষ টাকা ব্যাংকে রেখে সেই সুদ দিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ সংসার খরচ চালাতেন৷ তবে সেই টাকা ও বাড়ি নিজের নামে লিখে দেওয়ার জন্য চাপ দিতে শুরু করে স্ত্রী মিলি দত্ত। অভিযোগ, স্বামী সেই কথা না শোনায় শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার করতে থাকে মিলি। এরপর স্বামী ও মেয়েকে গত আড়াই দিন ধরে বাড়িতে একটি ঘরে তালা বন্ধ করে আটকে রেখে খেতে না দিয়ে অত্যাচার শুরু করেন। রবিবার সকালে ওই প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ও তাঁর মেয়ের চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। এবং বীজপুর থানায় খবর দেয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করে।

স্বামী ও কন্যাকে অমানবিক নির্যাতনের দায়ে বীজপুর থানার পুলিশ অভিযুক্ত স্ত্রী মিলি দত্তকে গ্রেফতার করে৷ ঘটনার তদন্ত চলছে।