এবার বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় ধূপগুড়ির যুবতী

ফালাকাটা, ২৬ জুনঃ “ভালোবাসার থার্মোমিটারে তিন মাত্রার উত্তাপ আছে। মানুষ যখন বলে ‘ভালোবাসি না’সেটা হল ৯৫ ডিগ্রি, যাকে বলে সাব নর্মাল। যখন বলে ‘ভালোবাসি’সেটা হল ৯৮.৪ ডিগ্রি, ডাক্তাররা যাকে বলে নর্মাল, অর্থাৎ একেবারে কোনো বিপদ নেই। কিন্তু প্রেমজ্বর যখন ১০৫ ডিগ্রি ছাড়িয়ে যায় তখনই বিপদ। কারণ যারা প্রবীণ ডাক্তার তারা বলে এটাই হল মরণের লক্ষণ।” কবিগুরু (শেষ রক্ষা)।

Top News

সেই ভালো বাসার টানে ধুপগুড়ির অনন্তর পর এবার বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় বসলেন প্রেমিকা। মঙ্গলবার থেকেই প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় বসেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে ফালাকাটা ব্লকের দক্ষিণ দেওগাঁওয়ে। ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের পর রেজিস্ট্রি করে বিয়ে করেন প্রেমিক ও প্রেমিকা। কিন্তু যুবতীর অভিযোগ, তারপরও সামাজিক বিয়ে করে প্রেমিকাকে ঘরে তুলছেন না তার প্রেমিক। এই অভিযোগ তুলে বিয়ের দাবিতে মঙ্গলবার ফালাকাটা ব্লকের দক্ষিণ দেওগাঁওয়ে প্রেমিকের বাড়ির সামনে রেজিস্ট্রি বিয়ের শংসাপত্র নিয়ে ধরনায় বসেন ধূপগুড়ির সাঁকোয়াঝোরার ওই যুবতী। এদিকে, ওই ঘটনা ঘটতেই গা ঢাকা দেয় প্রেমিক ও তাঁর পরিবারের লোকেরা।

সম্প্রতি ধুপগুড়িতে বিয়ের দাবিতে ধর্নায় বসে সফলতা পেয়ে ছিল অনন্ত বর্মণ। সেই ধারা অব্যাহত রাখে উত্তরবঙ্গ জুড়ে বেশ কিছু প্রেমিক যুবক। এবার সেই একই দাবি নিয়ে ধরনায় যুবতী।