আলিপুরদুয়ারে মুণ্ডহীন যুবকের দেহ উদ্ধারের পর ধৃতদের দিয়ে পুননির্মান করল পুলিশ

প্রকাশ মণ্ডল, আলিপুরদুয়ার: খোকন চৌধুরি খুনের ঘটনার পুননির্মান করল পুলিশ। বুধবার খোকন চৌধুরি খুনের ঘটনায় গ্রেফতার মলয় রায় ও রাজেন গোসাইকে নিয়ে ঘটনার পুননির্মান করেন। জানা গেছে, খুনের আগে আলিপুরদুয়ার সমাজ পাড়ার ভাটিখানাতে খোকনের সঙ্গে অন্যান্য দুষ্কৃতিদের মধ্যে বচসা ও মারপিট হয়। তার পর সেখান থেকে খোকনকে অটোতে করে পাটকাপাড়া নিয়ে যায় দুষ্কৃতিরা। পাটকা পাড়ার যেখানে খোকনকে খুন করা হয় সেখানেও এদিন দুই দুষ্কৃতিকে নিয়ে ঘটনার পুননির্মান করেন। এর পর যে স্থানে খোকনের কাটা মাথা ও ধারালো অস্ত্র লুকিয়ে রেখেছিল সেই স্থানেও দুষ্কৃতীদের নিয়ে যায় পুলিশ।

Top News

উল্লেখ্য ৮ মে বুধবার আলিপুরদুয়ার ১ নম্বর ব্লকের পাটকাপাড়া চাবাগানে মুণ্ডহীন খোকনের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। খোকন আলিপুরদুয়ার শহরের ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের সঞ্জয় কলোনির বাসিন্দা। পুরনো একটি খুনের চেষ্টার মামলার সাক্ষি ছিল খোকন। সেই কারনে তাকে সরিয়ে দেওয়ার জন্যই অন্য দুষ্কৃতিরা তাকে খুন করে বলে জানা গেছে। এই ঘটনার পর একে একে মলয় রায়, চন্দন রায় ও রাজেন গোসাইকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতার ৩ জন বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। এর মধ্যে মলয় রায় ও রাজেন গোসাইকে নিয়ে বুধবার ঘটনার পুননির্মান করল পুলিশ।