চোখে টর্চ মারার অপরাধে হাঁসুয়ার আঘাত, আহত ২

বিশ্বজিৎ মণ্ডল, মালদাঃ রাতের অন্ধকারে বাগানের আম চুরি হচ্ছে এই সন্দেহে টর্চ লাইট মারে পাহারাদার আর এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে দুই আড়ৎ যোগানদারকে হাঁসুয়ার আঘাত করা হয় বলে  অভিযোগ। এই ঘটনায় ওই দুই আড়ৎ যোগানদার গুরুতর আহত হয় তার চোখে আঘাত লাগে। গুরুতর আবস্থায় আহত আড়ৎ যোগানদার মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।  ঘটনাটি ঘটেছে মালদা জেলার ইংরেজবাজার থানার সাগরদিঘি গ্রামে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Top News

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আহত দুই জনের নাম স্বাধীন রায়  ও জিতের রায়। জানা গেছে,  আমের  মরসুমে  প্রতিবছরই তারা আমের বাগান যোগান ও আরোৎ যোগানদার এর কাজ করেন। সেই মতো এই বছরও যোগানদার এর কাজ পায় সাগর দিঘি গ্রামে।

এদিন রাত্রিবেলা আমের বাগানে ও আড়ৎ যোগান দিচ্ছিল। সেই সময়  আম চুরি উদ্দেশ্যে আড়তের দিকে আসছিলো কিছু মানুষ। অন্ধকারে তাদেরকে লক্ষ্য করে টর্চ দেখালে অভিযুক্ত বিফল মন্ডল,রাম মন্ডল সহ সাত আট জন ছুটে এসে স্বাধীন রায়ের ওপর চরাও হয়ে মারধর ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুনের চেষ্টা করে।

ঘটনার চিৎকারে পাশ থেকে দাদা জিতেন রায় ছুটে আসলে তাকেও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। তাদের চিৎকারে বাগানের অন্যান্য যোগানদারেরা ছুটে আসতে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। স্থানিয়রা  আহত অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর জিতেন্দ্র কে ছেড়ে দেওয়া হলেও আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্বাধীন রায় মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে তার বাম চোখে হাঁসুয়ার গুরুতর আঘাত লেগেছে। তার চিকিৎসা চলছে। গোটা ঘটনায় তিন অভিযুক্ত নামে ইংরেজ বাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে আহতের পরিবার। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত পলাতক। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।