নাবালিকা ধর্ষণ করে বাঁশবাগানে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ এক যুবকের বিরুদ্ধে  

তুষারকান্তি বিশ্বাস, উত্তর দিনাজপুরঃ বাঁশ ঝাড়ে ওড়নায় ফাঁস লাগানো এক নাবালিকার ঝুলন্তদেহ উদ্ধারকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকালে উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদ থানার চৈনগর পঞ্চায়েতের গোরুয়া গ্রামের। মৃতার নাম মুর্শিদা খাতুন (১১)। তাঁর বাড়ি ওই এলাকাতেই। ওই খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

Top News

মৃতের পরিবারের অভিযোগ, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে স্থানীয় ভরতপুর হাই স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণীর ওই ছাত্রী স্কুল থেকে ফিরে জমিতে ঘাস কাটতে যায়। কিন্তু ওই রাতে সে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। অনেক খোজ করেও তার রাতে সন্ধান মেলেনি। এদিকে শুক্রবার ভোরে জমিতে চাষ করতে গিয়ে নাবালিকার ঝুলন্তদেহ দেখতে পান স্থানীয়রা।

মৃতের আত্মীয়রা অভিযোগ, মৃত ওই নাবালিকার আত্মীয় এক যুবক তাকে জমিতে একা পেয়ে তাকে ধর্ষন করে বাঁশ ঝাড়ে ঝুলিয়ে দেয় বলে অভিযোগ করেন। এদিকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। মৃতার পরিবারের তরফে ভরতপুরের বাসিন্দা অলিপ মহম্মদ (১৯) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।