ধর্ষণে বাধা দেওয়ায় গৃহবধুর গলার নালি কেটে খুনের চেষ্টা

বিশ্বজিৎ মণ্ডল, মালদা: ধর্ষণে বাধা দিতে গেলে গৃহবধুর গলার নলি কেটে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার ভোর রাতে রতুয়া থানার রতনপুর পশ্চিম খাসমহল গ্রামে। রক্তাক্ত অবস্থায় তড়িঘড়ি ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে পরিজনেরা স্থানীয় গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করেন। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে সেখান থেকে তাকে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এ নিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছেন আক্রান্তের বোন।

Top News

স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, ওই গৃহবধূর স্বামী ভিন রাজ্যে শ্রমিকের কাজ করেন। সেখানেই কাজ করত তাঁদের প্রতিবেশী অভিযুক্ত যুবক সুকারিয়া চৌধুরি। বেশ কিছুদিন আগে দিল্লিতে কাজ করার সময় গৃহবধূর সাথে ওই অভিযুক্ত যুবকের আলাপ হয়। তিনমাস আগে ওই গৃহবধূ দিল্লি থেকে বাড়ি ফিরে আসেন। রবিবার রাতে অভিযুক্ত ওই যুবক গৃহবধূকে একলা পেয়ে  ঘরে ঢুকে এবং ধর্ষণের চেষ্টা করে বলে অভিযোগ। বাধা দিতে গেলে গৃহবধূর গলার নলি কেটে খুনের চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ। অভিযুক্ত সুকুরিয়া চৌধুরী ঘটনার পর থেকে পলাতক। তবে কী কারণে এমন ঘটনা ঘটল তা তদন্ত শুরু করেছে রতুয়া থানা পুলিশ।