বসন্তের প্রথম পূর্ণিমা আজ, রাতের আকাশে দেখা যাবে ‘ফ্লাওয়ার মুন’

ওয়েব ডেস্ক, ১৯ এপ্রিলঃ আজ রাতে আকাশে দেখা দেবে ‘গোলাপি চাঁদ’।  যাঁরা রাতের আকাশ দেখতে ভালোবাসেন, তাঁদের জন্য আজকের রাতটা স্পেশাল। কারণ আজ রাতে আকাশে দেখা দেবে ‘গোলাপি চাঁদ’।

Top News

আজ বসন্তের প্রথম পূর্ণিমা। আকাশে বেড় বড়সড় একটা চাঁদ দেখতে পাবেন, কিন্তু তার রং মোটেও গোলাপি হবে না। ভাবছেন, তাহলে ‘গোলাপি চাঁদ’ নামকরণের কারণ কী? ১৯ এপ্রিল বসন্তের প্রথম পূর্ণিমা। বসন্তের চাঁদ বলে এর নাম পশ্চিমী দেশগুলোতে ‘গোলাপি চাঁদ’। এর পরের পূর্ণিমাকে বলা হবে ‘ফ্লাওয়ার মুন’। পৃথিবীর সর্বত্রই দেখা যাবে এই ‘গোলাপি চাঁদ’।

দিনের আকাশে সূর্য আর রাতের আকাশে চাঁদ। এর থেকে বিশ্বস্ত ঘড়ি আর কী হতে পারত প্রাচীন মানুষের কাছে। সভ্যতার ভোরে চাঁদ সূর্য দেখেই সময় গণনা করত মানুষ। বিশেষ করে পূর্ণিমা আর অমাবস্যা ছিল সময়ের অন্যতম দ্যোতক। ফলে প্রাচীন সভ্যতার বেশিরভাগ সময় গণনা হতো চান্দ্রমাস অনুযায়ী। সৌর বর্ষপঞ্জী এসেছে অনেক পরে।

চাঁদের ষোলকলায় মুগ্ধ মানুষ তাকেই বেছে নিয়েছিল ঘড়ির কাঁটা হিসেবে। এক এক দেশে ঋতু পরিবর্তন অনুযায়ী পূর্ণিমার নামকরণ হতো এক এক রকম। এক মাসে দুবার পূর্ণিমা হলে ব্লু মুন। পৃথিবী ও চাঁদের মধ্যে দূরত্ব বাড়ে কমে চাঁদের উপবৃত্তাকার কক্ষপথের কারণে। ফলে নির্দিষ্ট আয়তনের থেকে চাঁদকে অনেকটাই বড় দেখায় বিশেষ বিশেষ দিনে। তখন তাকে পিঙ্ক মুনও বলা হয়।

ব্লু মুন, পিঙ্ক মুনের মতো একটা পূর্ণিমার নাম ফ্লাওয়ার মুন। পাশ্চাত্যে উত্তর গোলার্ধে মে মাসের পূর্ণিমাকে বলা হয় ফুলপূর্ণিমা বা ফ্লাওয়ার মুন। কারণ এ সময় চারপাশে প্রচুর পরিমাণে ফুল ফোটে, সে কারণেই ভালবেসে চাঁদকে এই সোহাগি নাম দেওয়া হয়েছে। ওয়াইল্ড গার্লিক, ইন্ডিগো, সানড্রপ, ভায়োলেট-এর মতো অসংখ্য ফুলে ছেয়ে থাকে পাহাড়ি ঢাল। তার উপর যখন চাঁদের হাসি বাঁধ ভাঙে, তখন সেই গোল চাঁদকে ফ্লাওয়ার মুন ছাড়া আর কী নামেই বা ডাকতে পারে মুগ্ধ পৃথিবীবাসী?