খেলার মাঠে জোর টক্কর, গত বারের চ্যাম্পিয়নদের কাছে ৪৮ রানে হারল বাংলাদেশ

ওয়েব ডেস্ক, ২১ জুনঃ গত বারের চ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে ৩৮২ রান তাড়া করে ৩৩৩ রানে থেমে গেল বাংলাদেশ৷ ঠিক কাঁটায় কাঁটায় টক্কর। ভাল লড়াই করেও হারতে হল বাংলাদেশকে৷অজি বাহিনীর কাছে ৪৮ রানে হারতে হল বাংলাদেশকে।

Top News

 এদিন ট্রেন্টব্রিজে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৩৮২ রান করেছিল অস্ট্রেলিয়া। ফের একবার দুর্দান্ত শুরু করেন দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও ফিঞ্চ নিজে। ফিঞ্চ ৫৩ রানে ফিরে গেলেও ওয়ার্নার ফের একবার অনবদ্য শতরান করেন। মাত্র ১৪৭ বলে তিনি করেন ১৬৬ রান। তিন নম্বরে নামা উসমান খোয়াজা ৮৯ রান করেন। শেষদিকে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১০ বলে ৩২ রান করে যান গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। সবমিলিয়ে ৫ উইকেটে ৩৮১ রানে থামে অস্ট্রেলিয়া।

রান তাড়া করতে গিয়ে শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের৷ মাত্র ২৩ রানে সৌম্য সরকারের উইকেট হারায় তারা৷ কিন্তু দ্বিতীয় উইকেটে তামিম ও শাকিব আল হাসান ৭৯ রান যোগ করে দলের ভিত মজবুত করার চেষ্টা করে৷ আগের ম্যাচ সেঞ্চুরি করে দলকে জেতানো শাকিব এদিন ব্যক্তিগত ৪১ রানে ড্রেসিংরুমে ফেরার পর বাংলাদেশের আশা শেষ হয়ে যায়৷ কিন্তু মুশফিকুরের দুর্দান্ত লড়াইয়ে তিনশোর গণ্ডি টপকে যায় বাংলাদেশ৷ শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ৩৩৩ রান তোলে তারা৷ ওয়ান ডে ক্রিকেটে এটাই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ স্কোর৷ এর আগে ওভালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৩৩০ রানই ছিল বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ওয়ান ডে স্কোর৷

ম্যাচ হারলেও বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের লড়াই মন জয় করে নেয়৷ শেষ পর্যন্ত ১০২ রানে অপরাজিত থাকেন মুশফিকুর৷ ৯৭ বলের ইনিংসে ৯টি বাউন্ডারি ও একটি ওভার বাউন্ডারি মারেন তিনি৷ ৫০ বলে পাঁচটি বাউন্ডারি ও তিনটি ছক্কা হাঁকিয়ে ৬৯ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন মাহমুহদল্লাহ৷ তামিমের সংগ্রহ ৬২৷ মিচেল স্টার্ক, কুলটার নাইল ও স্টওনিস দু’টি করে উইকেট নেন৷ বিধ্বংসী ইনিংস খেলে ম্যাচের সেরা হন ওয়ার্নার৷