ধোনির গ্লাভস থেকে সেনাবাহিনীর প্রতীক সরাতে অনুরোধ আইসিসি’র

ওয়েব ডেস্ক, ৭ জুনঃ মহেন্দ্র সিং ধোনি ভারতীয় সেনাবাহিনীকে সম্মান জানিয়ে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। বুধবার বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ম্যাচে সেনার প্রতীক আঁকা উইকেটকিপিং গ্লাভস পরেপরে মাঠে নেমেছিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি।  যা ভাল ভাবে নেয়নি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল। তারা ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে সেই প্রতীক ধোনির গ্লাভস থেকে সরানোর নির্দেশ দিয়েছে। আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার ও স্ট্র্যাটেজিক কমিউনিকেশ ক্লেয়ার ফার্লং আইএএনএসকে জানিয়েছেন, ‘‘আমরা বিসিসিআইকে অনুরোধ করেছি ধোনির গ্লাভস থেকে যেন সেই প্রতীক সরিয়ে দেওয়া হয়।”

Top News

বুধবার সাউদাম্পটনে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৬ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করেছে ভারত৷ সেনাবাহিনীর প্রতীক আঁকা উইকেটকিপিং গ্লাভস হাতে উইকেটের পিছনে দাঁড়ান ধোনি৷ উইকেটের পিছনে এই গ্লাভস দিয়ে একটি স্টাম্প করেছিলেন তিনি৷

টেলিভিশনের পর্দায় প্রাক্তন অধিনায়কের কিপিং গ্লাভসে ইন্ডিয়ান প্যারা স্পেশ্যাল ফোর্সের বলিদান ব্যাজ চাক্ষুষ করতেই চর্চা শুরু হয়ে যায় নেটিজেনদের মধ্যে। প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে বিরাট জয়কে ছাপিয়ে সেনাকে উৎসর্গ করে ধোনির এই বিশেষ গ্লাভস কুর্নিশ কুড়িয়ে নেয় নেটিজেনদের। সেই গ্লাভসের ছবি রাতারাতি ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই উদ্যোগের জন্য ধোনির প্রশংসা করতে পিছপা হননি তাঁর ফ্যানরা। কিন্তু সেনাবাহিনীর প্রতি ধোনির এই শ্রদ্ধা ভালোভাবে নেয়নি আইসিসি৷

ভারতের সশস্ত্র সেনার সাম্মানিক লেফট্যানেন্ট কর্নেল পদাধিকারী ধোনি। তাই দেশের সেনা-জওয়ানদের প্রতি তাঁর বাড়তি আবেগ কাজ করে৷ ২০১১তে ধোনিকে সম্মানসূচক কর্নেলেরে পদ দেওয়া হয়। সেই সময় তিনি বেশ কিছুদিন প্যারা রেজিমেন্টের সঙ্গে ট্রেনিংও করেন।

চলতি বছরের শুরুতে পুলওয়ামায় সেনা কনভয়ে জঙ্গি হামলায় শহীদ ভারতীয় জওয়ানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে অস্ট্রেলিয়ায় ভারতীয় দলের আর্মি ক্যাপ পরে মাঠে নামার ঘটনা ছিল ধোনির মস্তিষ্কপ্রসূত। সুতরাং রবিবার কেনিংটন ওভালে অস্ট্রেলিয়ারে বিরুদ্ধে এই গ্লাভস পরে মাঠে নামা হবে না ধোনির৷ আইসিসি-র ক্লথ রেগুলেটরি নিয়মানুযায়ী রাজনৈতিক, ধর্মীয় এবং জাতিগত কোনও মেসেজ আন্তর্জাতিক ম্যাচে দেওয়া যায় না৷