বিশ্বকাপে আজ দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখী ভারত

ওয়েব ডেস্ক, ৫ জুনঃ দক্ষিণ আফ্রিকার পেস বোলার কাগিসো রাবাডা ইতিমধ্যেই মাইন্ড গেম খেলতে শুরু করে দিয়েছেন। বিরাট কোহলিকে ‘অপরিণত’ আখ্যা দিয়েছেন তিনি। বিশ্বকাপে এর আগে ৪ বার একে অপরের মুখোমুখি হয়েছে দুই দল। বুধবারের পরিস্থিতি অনেকটাই ভিন্ন হতে চলেছে। সবার শেষে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। টুর্নামেন্টে ইতিমধ্যেই ২টি ম্যাচ খেলে ফেলেছে ফ্যাফ ডু’প্লেসির দক্ষিণ আফ্রিকা।

Top News

প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ড এবং দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের সামনে হারের মুখ দেখতে হয়েছে প্রোটিয়াদের। বুধবার সাদাম্পটনের রোজ বোলে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামছেন বিরাট কোহলিরা। ভারতের বিরুদ্ধে হেরে গেলে শেষ চারের আশা প্রায় শেষ হয়ে যাবে দক্ষিণ আফ্রিকার। এমতাবস্থায় দক্ষিণ আফ্রিকায় মানসিক অবস্থা বেশ কিছুটা তলানিতে বলাই বাহুল্য। তবে সাবধানী বিরাট অভিযান শুরুর আগেরদিন সাংবাদিক সম্মেলনে গেমপ্ল্যান নিয়ে বার্তা দিলেন অনেককিছুই। সাদাম্পটনে ভারতীয় বোলিংয়ের নেতৃত্বে থাকা যশপ্রীত বুমরার উপর অনেকটাই ভরসা থাকবে। তাঁর সঙ্গে রয়েছে ফর্মের তুঙ্গে থাকা মহম্মদ শামি, ভুবনেশ্বর কুমার ও হার্দিক পাণ্ড্যে। তবে ইংল্যান্ডের পরিবেশে ভারতের পেস বোলারদের উপরই বেশি নজর থাকবে।

ওপর দিকে দক্ষিণ আফ্রিকা দলের গুরুত্বপূর্ণ বোলার লুঙ্গি এনগিডি ও ডেল স্টেইন চোট পেয়ে ছিটকে গিয়েছে এই ম্যাচ থেকে। প্রাক্তন ক্রিকেটার সঞ্জয় মঞ্জরেকর বলেন, ‘‘ভারতের শক্তি হতে চলেছে তাদের বোলিং।”তিনি আরও বলেন, ‘‘ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে এই বিশ্বকাপের ফেভারিট ভারত। নিউজিল্যান্ড ডার্ক হর্স।। বাকিরা সকলেই আন্ডারডগ। গত দু’দিন ধরেই সাউদাম্পটনের আকাশের মুখ ভার। বুধবার আবহাওয়া এমনই মেঘাচ্ছন্ন থাকলে প্রয়োজনে অতিরিক্ত সিমারে যেতে পারে দল, জানালেন ভারত অধিনায়ক। এমনকি রোজ বোলে বুধবার দলে মহম্মদ শামির পরিবর্তে অন্তর্ভুক্তি ঘটতে পারে ভুবনেশ্বর কুমারের, বার্তা দিলেন কোহলি। সেক্ষেত্রে হার্দিক পান্ডিয়ার সঙ্গে দলে তৃতীয় সিমারের ভূমিকায় দেখা যেতে পারে বিজয় শংকরকে। তবে নিশ্চিত নয় কিছুই।

প্রথম ম্যাচে প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে দলে কেদার যাদবের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে কোনও প্রশ্নচিহ্ন নেই। পেস সহায়ক পিচে ভুবনেশ্বর ব্যাট হাতে দলকে অনেকটাই ভরসা জোগাতে সক্ষম। ম্যাচের দিন সকালে পিচের চরিত্র বুঝে তবেই একাদশ ঠিক করা হবে, সাফ জানান ভারত অধিনায়ক। একইসঙ্গে স্কোরবোর্ডে ২৬০-২৭০ রান থাকুক কিংবা ৩০০। আমাদের বোলাররা যে কোনও স্কোর ডিফেন্ড করার ক্ষমতা রাখে। জানিয়ে দেন প্রথমবার বিশ্বকাপে দেশকে নেতৃত্ব দিতে চলা কোহলি। কিন্তু অনেকেই মনে করছেন ভারতের বিরুদ্ধেই ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য মরিয়া লড়াই দেবে দক্ষিণ আফ্রিকা। যে কারনে যত সহজে প্রথম দুই প্রতিপক্ষ জিতে গিয়েছে ভারতের জন্য ততটা সহজ নাও হতে পারে প্রথম ম্যাচে।