এসএসসির আপার প্রাইমারি নিয়ে ফের হাইকোর্টে মামালা প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের

কলকাতা, ১২ জুনঃ উচ্চ প্রাথমিক নিয়ে ফের মামালা হল হাইকোর্টে। স্কুল সার্ভিস কমিশনের আপার প্রাইমারির থার্ড ফেজ় ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশনে ডাকা না পেয়ে আদালতের মামলা করল প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত চাকুরি প্রার্থীরা। মঙ্গলবার প্রায় ৮০ জন চাকরিপ্রার্থী এই মর্মে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন। বিচারপতি মৌসুমি ভট্টাচার্যের সিঙ্গল বেঞ্চে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আগামী সপ্তাহে এই মামলার শুনানি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রশিক্ষণ ও বেশি নম্বর পাওয়ার পরেও এই চাকরিপ্রার্থীরা  স্কুল সার্ভিস কমিশনের উচ্চ প্রাথমিকে ডাক না পাওয়ায় কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন।

Top News

মামলাকারীদের তরফে আইনজীবী ফিরদৌস শামিম জানান, একাধিক প্রার্থী যাদের প্রশিক্ষণ নেই তাঁদের ডকুমেন্টস ভেরিফিকেশনের জন্য ডেকেছে স্কুল সার্ভিস কমিশন। অথচ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থী যেমন, বাংলা বিষয়ের ঝুমা ব্যানার্জি, রূপা মণ্ডল, মহম্মদ আজিজুর রহমান, ভূগোলের আনিসুর রহমান, মমতা গায়েনকে ডাকা হয়নি। ডাকা হয়নি ইতিহাসের পলাশ মণ্ডল ও আরিফ মহম্মদ শেখ, ইংরেজির সোমা চৌধুরি, বিশ্বজিৎ ভূইঞাঁ, সঙ্গীতা মাইতিকে। বায়ো-সায়েন্সের পিন্টু কুমার নন্দীও ডাক পাননি।

আইনজীবী ফিরদৌস শামিম বলেন, “NCTE (ন্যাশানাল কাউন্সিল ফর টিচার এডুকেশন)-র গাইড লাইন অনুযায়ী প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের আগে সুযোগ দিতে হবে। কিন্ত এখানে সেই নিয়ম মানা হয়নি। শুধু তাই নয়। এই ধরনের একাধিক মামলায় হাইকোর্টও বারবার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থীদের পক্ষেই রায় দিয়েছে। তারপরও স্কুল সার্ভিস কমিশন তাদের ভুল সংশোধন করতে সক্ষম হয়নি। তাই এবার আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন চাকুরিপ্রার্থীরা।”