তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রচারে বাধা দেওয়ার অভিযোগ তুলে থানায় বিক্ষোভ বাম প্রার্থীর

পার্থ দাস, বীরভূম, ১৪ এপ্রিলঃ রাজ্যের শাসক দলের বিরুদ্ধে প্রচারে বাধা দেওয়ার অভিযোগ তুলে থানার সামনে অবস্থান বিক্ষোভে বসলেন বীরভূম লোকসভা কেন্দ্রের সিপিএইএম প্রার্থী রেজাউল করিম ও তাঁর কর্মী সমর্থকরা। রবিবার দুপুরে বীরভূমের দুবরাজপুর বিধানসভার পদুমা পঞ্চায়েতের বোধগ্রামে সিপিএইএম প্রার্থীকে প্রচারে যেতে বাধা দেওয়া হয় বলে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে অভিযোগ।

Top News

বাম প্রার্থীর দাবী, প্রয়োজনীয় অনুমতি নিয়েই এদিন কর্মী সমর্থকদের সাথে ওই এলাকায় প্রচারে গিয়েছিলেন। বোধগ্রাম ঢোকার মুখেই তৃণমূল কংগ্রেসের মোটর সাইকেল বাহিনী তাঁদের বাধা দেয় বলে অভিযোগ। প্রচারের সাথেই ছিল নির্বাচন কমিশনের নজরদারীর গাড়ি। কিন্তু তাঁরাও নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছে বলে অভিযোগ। থানায় ফোন করা হলেও প্রায় এক ঘন্টা বাদে পুলিশ সেখানে পৌঁছায়। কিন্তু তাঁদেরও কোনো সদর্থক ভুমিকা নিতে দেখা যায় নি বলে বাম প্রার্থীর অভিযোগ। এরপরেই প্রার্থী রেজাউল করিম কর্মী সমর্থকদের নিয়ে দুবরাজপুর থানার সামনে এসে অবস্থানে বসেন। থানাও ঘেরাও করে স্লোগান দিতে থাকেন।

রেজাউল করিম তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘’এখনই এই অবস্থা হলে মানুষ তার গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করবে কি করে। সমস্ত অনুমতি নিয়েই এদিন প্রচারে গিয়েছিলাম। অথচ তৃণমূলীরা আমাদের প্রচার আটকে দিল। নির্বাচন কমিশনের নজরদারি দলও ছিল নির্বিকার। পুলিশ খবর দেওয়ার ১ ঘন্টা বাদে এসে পৌঁছালেও তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয় নি।  তাই প্রতিবাদ জানাতে থানায় অবস্থানে বসেছি। বিহিত না হওয়া পর্যন্ত অবস্থান চলবে।”