তৃনমূল কর্মিকে ধারালো অস্ত্রের কোপ, অভিযোগের তীর বিজেপির বিরুদ্ধে

শ্যাম বিশ্বাস, বসিরহাটঃ বোর্ড গঠনের পর বিজয় মিছিল শেষে বাড়ী ফেরার পথে তৃনমূল কর্মিকে ধারালো অস্ত্রের কোপ দেওয়ার অভিযোগ উঠল বিজেপি কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। পরে তৃনমূল ও বিজেপি কর্মী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত হন আরও পাঁচ তৃনমূল কর্মী। আহত ওই তৃনমূল কর্মিদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে পাল্লা গ্রামীন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁদের মধ্যে সৌমেন সুতার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাঁকে বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়। অন্য আহতদের পাল্লা গ্রামীন হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। ঘটনাটি ঘটেছে, বনগাঁর গোপালনগর চৌবেরিয়া এলাকার।

Top News

স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, আজ বনগাঁর চৌবেরিয়া ১ নং গ্রাম পঞ্চায়েতে আজ প্রধান গঠন করে তৃনমূল কংগ্রেস। প্রধান নির্বাচিত হন বনানী নন্দী। এরপর তৃনমূল কর্মী সমর্থকরা বিজয় মিছিল করে। মিছল শেষে বাড়ী ফিরছিলেন নহাটা কলেজে ছাত্র সংসদের এজিএস সৌমেন সুতা। তাঁকে বিজেপির কর্মী সমর্থকরা রাস্তায় আটকে মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়। খবর পেয়ে সেখানে ছুটে যায় বেশ কিছু তৃনমূল কর্মী। তারা সেখানে গেলে তাঁদেরকেও বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। আহতদের উদ্ধার করে স্থানিয়রা হাসপাতালে নিয়ে যায়। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।