বিষ খেয়ে আত্মঘাতী প্রেমিক যুগল, শ্রীমতি নদীর ধার থেকে উদ্ধার দেহ

সত্যেন মহন্ত, কালিয়াগঞ্জঃ বিষ খেয়ে আত্মঘাতী প্রেমিক যুগলের দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ থানার ফতেপুর এলাকায়। আজ সকালে স্থানীয় লোকজন ওই প্রেমিক যুগলকে শ্রীমতি নদীর ধারে পরে থাকতে দেখেন। মৃত ওই প্রেমিক যুগলের নাম সুবল সরকার(২৫) ও কল্পনা সরকার (২৩)। তাঁদের বাড়ী দক্ষিন দিনাজপুর জেলার কুশুমন্ডি এলাকার ১নং অঞ্চলের চাপড়া গ্রামে। ওই ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই ভিড় জমান স্থানীয় লোকজন।

Top News

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সুবল সরকার বিভিন্ন হাটে মশলার দোকান করে। তার সাথে রায়গঞ্জ সুরেন্দ্রনাথ কলেজ এম প্রথম বর্ষে ছাত্রী কল্পনা সরকারের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওই যুবক যুবতী সম্পর্কে কাকা ও ভাস্তী বলে জানা গিয়েছে। গতকাল দুপুর থেকে বাড়িতে ছিলো না সুবল। পরিবার লোকেদের ধারনা ছিলো সে হয়তো দোকানের মাল কিনতে বাইরে গেছে। অন্যদিকে কল্পনার বাড়ির লোক কল্পনাকে বিকেল থেকে দেখতে পায়নি। তারা ভেবেছিল কল্পনা তার মামার বাড়ি কালিয়াগঞ্জের সেরগ্রামে গিয়েছে।

কিন্তু আজ সকালে মৃত্যুর খবর পায় তাঁদের পরিবারের লোকেরা। মৃতদেহের পাশ থেকে মিষ্টি সহ বিভিন্ন ধরনের খাবার ও বিষ পাওয়া গেছে বলে স্থানিয়দের দাবি। ঘটনার খবর পেয়ে কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতালে পাঠায়। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ।