স্কুলে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার ১ ছাত্র

ওয়েব ডেস্ক, ১১ জুলাইঃ প্রাইমারি স্কুলে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে আড়াই লক্ষ টাকা আদায়ও করেছিল সহপাঠীর কাছ থেকে। ওই ঘটনার জেরে আটক করা হয়েছে এক ছাত্রকে।

Top News

জানা গেছে, আরও সাড়ে পাঁচ লক্ষ টাকা হাতানোর পরিকল্পনা ছিল তার। কিন্তু তা আর সম্ভব হয়নি। তার আগেই গোটা পরিকল্পনা ফাঁস হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত প্রতারিত ছাত্রের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত ছাত্র আমিরুল হোসেন খানকে বুধবার রাতে গ্রেফতার করে আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন তাঁরই বন্ধু আবদুস সালাম। মোটা টাকার বিনিময়ে বন্ধুকে প্রাইমারি শিক্ষকের চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দিয়েছিলেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামি হিস্ট্রির পড়ুয়া আমিরুল হোসেন খান। পুলিশ ধৃতের বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির ৪২০(প্রতারণা) এবং ১২০বি(অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র) ধারায় মামলা দায়ের করেছে।

বীরভূমের বাসিন্দা আবদুস সালামের অভিযোগ, ৮ লাখ টাকার বিনিময়ে তাঁকে প্রাইমারি স্কুলে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় আমিরুল হোসেন খান। দক্ষিণ ২৪ পরগনার গোসাবার বাসিন্দা আমিরুলকে অগ্রিম ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। কিন্তু চাকরি হয়নি। পড়াশোনা সূত্রে দু’জনেই থাকেন কলকাতার কারমাইকেল হোস্টেলে। বহুদিন কেটে যাওয়ার পরও কোনও চাকরি হয়নি বা অগ্রিম টাকা ফেরত দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ সালামের।

যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করে আমিরুল। তাঁর দাবি, ‘চাকরির জন্য জোরাজুরি সেই করছিল। নিজের ইচ্ছেতেই টাকা দিয়েছিল, আমি চাইনি।‘