রোগীর মৃত্যুতে ধুন্ধুমার মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে, চাঞ্চল্য

মালদা, ১১ জানুয়ারিঃ রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ফের উত্তপ্ত মালদা। ঘটনাটি ঘটেছে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে৷ ওই ঘটনায় রোগীর আত্মীয়দের সঙ্গে জুনিয়র চিকিৎসকদের ধাক্কাধাক্কিও হয় বলে অভিযোগ৷ ওই ঘটনার প্রতিবাদে কর্ম বিরতির ডাক দেয় জুনিয়র ডাক্তাররা৷ ওই ঘটনার পরিস্থিতি মোকাবিলায় করতে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন ইংরেজবাজার থানার পুলিশ৷

Top News

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মৃত ওই রোগীর নাম বীরেন সরকার (৯০)৷ তার বাড়ি ইংরেজবাজার থানার রবীন্দ্র ভবন এলাকায়। জানা গেছে, বীরেন সরকার শ্বাসকষ্ট নিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা বেলায় মালদা মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হন। অভিযোগ, রাত্রিবেলায় তার অবস্থা খারাপ হতে থাকলে বারবার চিকিৎসককে ডাকলেও তারা কোনও ভ্রূক্ষেপ করেনি। এরপর রাত্রিবেলায় ওই রোগীর মৃত্যু হয়। ওই ঘটনার প্রতিবাদে রোগীর আত্মীয়রা জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি করতে শুরু করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। সমগ্র ঘটনার প্রতিবাদে জুনিয়র ডাক্তাররা এদিন কর্ম বিরতি ডাক দেয়। যার ফলে দূরদূরান্ত থেকে আসা বহু রোগী সমস্যায় পড়ে বলে অভিযোগ৷ ওই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে  ইংলিশবাজার থানার পুলিশ।

মালদহ মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, “হাসপাতালের জুনিয়র চিকিৎসকদের আন্দোলন থেকে বিরত থাকার আবেদন জানান হয়েছে। পরে মালদা জেলার শাসক কৌশিক ভট্টাচার্য্য হস্তক্ষেপ তা সমাধান হয়ে যায়।”

জুনিয়র চিকিৎসকদের হেনস্থা করার ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেফতারের প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পর কাজে যোগ দিয়েছেন জুনিয়র ডাক্তাররা। তবে শুক্রবার দুপুর ১২ টার মধ্যে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা না হলে কর্ম বিরতি আন্দোলন পুনরায় শুরু করবেন বলে জানান জুনিয়ার ডাক্তাররা৷