লাফাং ঝাপাং করাই সার, ভোটের দিন এলাকা থেকে পালিয়ে এলেন দিলীপ ঘোষ

ওয়েব ডেস্ক, ১২ মেঃ লাফাং ঝাপাং করাই সার। ভোটের দিন বিক্ষোভের মুখে এলাকা ছাড়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। অভিযোগ, এলাকা পরিদর্শন করতে গিয়ে তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখায় স্থানীয় মানুষেরা। তিনি ‘আক্রান্ত’  হয়েছেন বলেও অভিযোগ করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

Top News

জানা গেছে, সকাল থেকেই পশ্চিম মেদিনীপুরে একাধিক জায়গায় ভারতী ঘোষকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন ভোটাররা। তারপর বাদ গেলেন না দিলীপ ঘোষও। সেই জেলারই দাঁতনের মোহনপুরের রামপুরায় যান দিলীপ ঘোষ। ছাপ্পার অভিযোগ পেয়েই সেখানে গিয়েছিলেন বলে নিজেই জানান দিলীপ। এরপর বুথে ঢুকে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন। এই সময় বুথের বাইরেই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন আমজনতা। পাশাপাশি দিলীপ ঘোষ ‘গো ব্যাক’ স্লোগানও তোলা হয় বলে অভিযোগ।

এলাকার মানুষের অভিযোগ, সেখানে কোনও গণ্ডোগোল হয়নি। এলাকায় অশান্তি ছড়াতেই সেখানে গিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। এমনকী তাঁর গাড়ি ঘিরে ধরেও বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন মানুষ। ভোটের আগে বিভিন্ন সভায় রীতিমতো উত্তেজনামূলক বক্তব্য রাখতে দেখা গিয়েছিল দিলীপ ঘোষকে।

এমনকী ভোটের দিন কর্মীদের বাঁশ নিয়েও তৈরি থাকার নির্দেশ দিয়েছিলেন দিলীপ। কিন্তু ভোটের দিন দেখা গেল অন্য চিত্র। কার্যত এলাকা ছেড়ে পালাতে বাধ্য হলেন বিজেপি সভাপতি। পরে তিনি বলেন,‘মানুষকে ভোট দিতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। সেই খবর পেয়ে গিয়েছিলাম বুথে। সেখানে তৃণমূল আমাদের ওপর আক্রমণ করা হয়েছে।’

যদিও দিলীপের দাবি সম্পূর্ণ নস্যাৎ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাদের দাবি স্পষ্ট, সাধারণ মানুষ নিজেরাই বাধা দিয়েছেন। বিশৃঙ্খলা ছড়াতেই গিয়েছিল দুলীপ ঘোষ। সেকারণেই তিনি বাধার মুখে পড়েছেন। এখানে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের কোনও হাত নেই।