পুরুলিয়ায় মোদীর সভায় চরম বিশৃঙ্খলা, চেয়ার ছোড়াছুড়ি! প্রতিক্রিয়ায় কী বললেন মমতা

ওয়েব ডেস্ক, ৯ মেঃ মোদী সভা ঘিরে চরম বিশৃঙ্খলা। আজ বৃহস্পতিবার পুরুলিয়াতে বিজেপি প্রার্থী জ্যোতির্ময় মাহাতোর সমর্থনে সভা করতে আসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর সেই সভা শুরুর আগেই চরম বিশৃঙ্খলা শুরু হয় মোদীর সভাজুড়ে।

Top News

কর্মী সর্থকদের মধ্যে চেয়ার, জলের বোতল ছোড়াছুড়ি শুরু হয়ে যায়। কার্যত মাঠজুড়ে মোদীর সভায় কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক ধ্বস্তাধস্তি বেঁধে যায়। ধ্বস্তাধস্তির মধ্যে পড়ে গিয়ে আহত হয়েছেন কয়েকজন কর্মী সমর্থক। এমনকি নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মীদের লক্ষ্য করে জলের বোতলও ছোঁড়া হয় বলে অভিযোগ।

জানা গেছে, ষষ্ঠদফা ভোট যুদ্ধের আগে এদিন রাজ্যে মোদী-মমতার হাইভোল্টেজ লড়াই জমে ওঠে। এদিন বাঁকুড়া, পুরুলিয়ার মাটিতে মোদী আর মমতার জোড়া সভা ঘিরে ভোট ভোল্টেজ তুঙ্গে ওঠে। এদিকে,বাঁকুড়ার পর এদিন পুরুলিয়ায় সভায় যোগ দেন মোদী। তবে মোদী যে সময়ে বাঁকুড়ার সভায় যোগ দিয়ে বক্তব্য রাখছেন, সেই সময়ে পুরুলিয়াতে তাঁর জন্য অপেক্ষারত জনতার মধ্যে বিশৃঙ্খলা দেখা যায়। ঘটনায় আহত হয়েছেন অনেকে। পুরুলিয়ায় সভায় ছাউনির তলায় আসবার জন্য চেষ্টা করতে থাকেন বহু বিজেপি সমর্থক। এরপর চেয়ার সরিয়ে দিয়ে তাঁরা ভিতকে ঢোকবার চেষ্টা করেন। সেই সময় শুরু হয় চেয়ার ছোড়াছুড়ি। পরিস্থিতি বাগে আনতে বেগ পেতে হয় পুলিশকে।

অপরদিকে পুরুলিয়াতেই তৃণমূলের সভায় বক্তব্য রাখার সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে পৌঁছে যায় এই বিশৃঙ্খলার তথ্য। তিনি পুরুলিয়ার মঞ্চ থেকে বলেন,’আমাদের সভায় এমন বিশৃঙ্খলা হয় না।

পাশপাশি তাঁর দাবি,পুরুলিয়ার সভায় বিজেপি সমর্থকরা রাজ্য পুলিশকে মানতে চানন নি। উল্টে রাজ্য পুলিশকে চেয়ার ছোড়া হয়েছে বিজেপির সভায় বলে দাবি,করেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্য পুলিশের সামনেই কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপস্থিতিতে চলেছে এরকম বিশৃঙ্খলা।

প্রসঙ্গত,এর আগেও মোদীর সভা ঘিরে এমন বিশৃঙ্খলার ছবি দেখা গিয়েছে। বনগাঁতে সভা করতে আসেন প্রধানমন্ত্রী। সভায় এতটাই বিশৃঙ্খলা তৈরি হয় যে দ্রুত বক্তব্য শেষ করে চলে যেতে হয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে।