১০০ দিনের কাজের প্রতিবাদ করায়, বিজেপি কর্মীকে মারধোরের অভিযোগ দলের উপপ্রধান ও তার স্ত্রী বিরুদ্ধে

তুষার কান্তি বিশ্বাস, ইসলামপুরঃ ১০০ দিনের কাজের প্রতিবাদ করায় বিজেপি কর্মীকে ধারালো অস্ত্র নিয়ে তার উপর চড়াও হয় এবং মারধর করার অভিযোগ দলেরই উপপ্রধান ও তার স্ত্রী বিরুদ্ধে। এই ঘটনার জেরে আলোড়ন ছড়িয়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জের বরুনা গ্রাম পঞ্চায়েতের অধিন ঝাপইল গ্রামে। জানা গেছে, বিজেপির উপ প্রধান নাম ননীগোপাল মন্ডল ও তার স্ত্রী নিভা মন্ডলের বিরুদ্ধে কালিয়াগঞ্জ  থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন বিজেপি কর্মি দীপু সরকার। অভিযোগের ভিত্তিতে কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে।

Top News

অভিযোগ, করে বিজেপি কর্মী দীপু সরকার জানান,তিনি অনেক বছর ধরেই বিজেপি করে আসচ্ছেন। বিগত কিছুদিন ধরে বরুনা গ্রাম পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে ১০০ দিনের কাজের দুর্নিতির অভিযোগ উঠে এসেছে। তিনি তার প্রতিবাদ করলে তার উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে  চরাও হয় উপ প্রধান ননীগোপাল মন্ডল ও তার স্ত্রী নিভা রায়। গ্রামের মানুষের সহযোগিতায় নিয়ে প্রান নিয়ে কোন প্রকারে ফিরে আসেন। এবং কালিয়াগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন দুজনের বিরুদ্ধে।

এবিষয় নিয়ে উপপ্রধান ননীগোপাল মন্ডল জানান, দিপু সরকার নামে ব্যক্তি আমাকে কয়েকদিন ধরেই গালিগালাজ ও ফোনে প্রান নাশের  হুমকি দিচ্ছে। সে মাঝে মধ্যে টাকার দাবি করে। দিপু সরকার কোন দল করে না। ও স্বার্থ লোভি যেখানে স্বার্থ আছে তখন সেই দলে সাথে থাকে। আজ সকালে যখন দিপু সরকার আমার বাড়ির সামনে এসে অজস্রভাষায় গালি গালাজ করতে থাকে আমি বেড়িয়ে আসলে একটু ধাক্কাধাক্কি হয় গ্রামের লোকেরা তাকে সড়িয়ে দেয়। যাবার আগে সে বলে জায় সে বোম ও পিস্তল নিয়ে আসচ্ছে। তিনি ও তার পরিবার আতঙ্গের মধ্যে আছেন৷ তিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করবেন।