রাস্তা তৈরিকে কেন্দ্র করে  উত্তেজনা, পঞ্চায়েত সদস্য সহ আহত ২

অভিষেক চক্রবর্তী, পশ্চিম মেদিনীপুরঃ প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ সড়ক যোজনা রাস্তা করাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা। হাতাহাতি থেকে লাঠালাঠি, এই ঘটনায় পঞ্চায়েত সদস্য সহ আহত আরও একজন। ঘটনাটি ঘটে চন্দ্রকোনা টাউনের মানিক কুণ্ড গ্রাম পঞ্চায়েতের কাশকুলি গ্রামে। ওই ঘটনার খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে চন্দ্রকোনা টাউন থানার পুলিশ। ওই ঘটনায় পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। জানা যায়, কাশ কুলি গ্রাম থেকে মানিক কুন্ডু পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ সড়ক যোজনা শুরু হয়েছে। আর এই কাজেই বাড়ি ভাঙাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা।

Top News

বিজেপি পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য অজিত ঘোষ বলেন, “রাস্তা সম্প্রসারণের জন্য বেশ কিছু লোকের বাড়ি পড়ে। সেই জন্য গ্রামিন উন্নয়নের জন্য এলাকাবাসী দের বলা হয় যে রাস্তার ধারে যে বাড়ি গুলো রাস্তার উপর পড়েছে। অবিলম্বে বাড়ি গুলি ভেঙে দেয়া হোক। কিন্তু সকলেই বাড়ি ভাঙ্গলেও গ্রামের এক ব্যক্তি অলক সাঁতরা খাস জাগায় চালা বাড়ি ছিল। সেই বাড়ি তারা দীর্ঘদিন ধরে না ভাঙার ফলে কাজ শুরু হচ্ছিল না ওই জায়গায়। তাই আজ আমরা ওই চালা বাড়িটি সরাতে গেলে অলোক সাঁতরা দের পরিবারের লোকেরা লাঠিসোটা নিয়ে আমাদের উপর চড়াও হয়। আমাদের মারধর করে।

তিনি আরও বলেন, আমরা মনে করি অলক সাঁতরা পরিবার তৃনমূলের কর্মী-সমর্থ তাই এটা উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবেই ঘটিয়েছে। যদিও অভিযুক্তের পরিবারের সদস্য পূর্ণিমা সাঁতরা বলেন, গ্রামের পঞ্চায়েত সদস্য আমাদের না জানিয়ে লোকজন নিয়ে এসে আমাদের বাড়ি ভাঙ্গতে গিয়েছিল তাই এই ঘটনা। এই ঘটনায় উভয় পক্ষেই চন্দ্রকোনা টাউন থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।