ভারতে বিপন্ন মুসলিম ও অন্য সংখ্যালঘুরা, তাদের হয়রানি করার অভিযোগে বিজেপি সরকারকে রাষ্ট্রসংঘের কড়া বার্তা

ওয়েব ডেস্ক, ২৫ এপ্রিলঃ ভারতবর্ষে বসবাসকারি মুসলিম ও অন্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়গুলিকে হয়রানি করার অভিযোগে ভারত সরকারকে হুঁশিয়ারি দিলেন রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক সমিতির প্রধান মিশেলে ব্যাচেলেট।

Top News

জেনেভায় রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার পরিষদে বার্ষিক রিপোর্ট পেশ করে ব্যাচেলেট বলেন, ‘ভারতে বিভাজনের নীতির কারণে সেখানকার অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি আঘাতপ্রাপ্ত হতে পারে। সেখানে সংকীর্ণ রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের কারণে অসম সমাজ ব্যবস্থা তৈরি হয়েছে, যার প্রান্তিক পর্যায়ে রয়েছে বিপন্ন শ্রেনিগুলি। ভারতে সংখ্যালঘুদের, বিশেষ করে মুসলিমদের বিরুদ্ধে হয়রানি ও তাদের নিশানা করে নানা অপ্রীতিকর ঘটনা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে আমরা রিপোর্ট পাচ্ছি।’

রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক শাখা এতে ভীষণ রকম উদ্বিগ্ন। ব‍্যাচেলেটের প্রতিটি কথায় তার ছাপ রয়েছে। তাঁর বক্তব‍্য, ‘আমরা রিপোর্ট পাচ্ছি, ঐতিহাসিকভাবে পিছিয়ে পড়া এবং প্রান্তিক জাতিগোষ্ঠী, যেমন দলিত ও আদিবাসীরাও একই আচরণের শিকার হচ্ছেন।’

যদিও জাতিসংঘের কর্মকর্তা মিশেল ব্যাচেলেটের অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন বিজেপির অন্যতম মুখপাত্র শাহনওয়াজ হুসেন। তিনি বলেন, ‘জাতিসংঘ মানবাধিকার প্রধানের রিপোর্টকে আমরা প্রত্যাখ্যান করছি।’ লোকসভা নির্বাচন চলাকালীন রাষ্ট্রসংঘের এই রিপোর্টে অস্বস্তিতে পড়েছে ভারতের শাসকদল।